× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৫ জুন ২০২০, শুক্রবার

দূরত্ব বজায় রাখতে ছত্রপতি হওয়ার পরামর্শ

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ২৮ এপ্রিল ২০২০, মঙ্গলবার, ১০:৫১

করোনা সংক্রমণের মোকাবিলায় মাস্ক পরা এবং একে অপরের সঙ্গে দূরত্ব বজায় রাখার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। আসলে সংক্রমণের মোকবিলায় এ সবের কোনও বিকল্প নেই। কিন্তু বলা যতটা সহজ বাস্তবে সেটা ততটা সহজ নয়। রাস্তায় বেরিয়ে প্রায় ঘেঁষাঘেঁষি করে চলা আমাদের একটা অভ্যাস হয়ে গিয়েছে। তাই দূরত্ব বজায় রাখার জন্য এক অভিনব পন্থার কথা বলেছে ভারতের দক্ষিণের রাজ্য কেরালার একটি গ্রাম পঞ্চায়েত। আলপ্পুঝা জেলার একটি গ্রাম পঞ্চায়েত নিয়ম চালু করেছে, বাইরে বেরোলে ছাতা সঙ্গে রাখা বাধ্যতামূলক। রোদ বা বৃষ্টি থাকুক বা না থাকুক, ছাতা সঙ্গে রাখতে হবে। আর সঙ্গে রাখা শুধুই নয়।
সকলকে ছাতা খুলে চলাফেরা করতে হবে।  পঞ্চায়েত নেতৃত্বের বক্তব্য, বাইরে বেরিয়ে ছাতা খুলে রাখলে তার দৌলতেই একে অপরের সঙ্গে গা ঘেঁষাঘেঁষি এড়ানো যাবে সহজেই। সাধারণ মানুষের স্বার্থে সরকারি সহায়তায় অল্প দামে ছাতা দেওয়ার ব্যবস্থাও করা হয়েছে। কেরালার অর্থমন্ত্রী টমাস আইজ্যাক আলপ্পুঝা কেন্দ্র থেকেই নির্বাচিত। তিনি জানিয়েছেন, ছাতার জন্য আপাতত সরকারি ভর্তুকির ব্যবস্থা থাকছে। সিপিআইএমের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আইজ্যাকের কথায়, এটা বেশ ভাল ভাবনা। নিয়মটা হল, একজনের ছাতার সঙ্গে অন্যজনের ছাতার সংস্পর্শ রাখা চলবে না। একে অপরকে স্পর্শ না করে দু’টো ছাতা পাশাপাশি খুলে রাখলে দু’জনের মধ্যে এক মিটার ব্যবধান রাখা সম্ভব। এতে দূরত্ব-নীতি বজায় রাখা যাবে। পঞ্চায়েতের এই ছত্রপতি হওয়ার পরামর্শ সকলের নজর কেড়েছে। কেরালা সরকারও তাই ভাবছে, এই ব্যবস্থা যদি ঠিকমত কাজে দেয় তাহলে রাজ্যের সর্বত্র এই ব্যবস্থা চালু করা হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
SJ
২৮ এপ্রিল ২০২০, মঙ্গলবার, ৪:২২

প্রখর বুদ্ধিদীপ্ত কাজ করেছে। ছাতা খোলা থেকে সামাজিক দূরত্ব কিছুটা হলেও বেড়ে যাবে। অন্যদিকে ছাতা খোলা থাকায় বায়ু চাপ থাকবে নিম্নমুখী তাই ছাতা খোলা রাখা ব্যক্তির নিঃশ্বাস নিম্নমুখী পতিত হবার সম্বাবনা বেশী।।

অন্যান্য খবর