× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ১ জুন ২০২০, সোমবার
কলকাতা কথকতা

করোনা নিয়ে মোদি সরকারকে নজিরবিহীন আক্রমণ তৃণমূল কংগ্রেসের

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা | ৬ মে ২০২০, বুধবার, ৩:২৬

করোনা নিয়ে সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস এক নজিরবিহীন আক্রমণ করলো কেন্দ্রের মোদি সরকারকে। এই সাংবাদিক সম্মেলনে এই অভিযোগও তোলা হলো যে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট সময়মতো বন্ধ না করে দেশে করোনা সংক্রমণ ছড়ানোর এজেন্ট হিসেবে কাজ করেছে মোদি সরকার। এছাড়াও এই অভিযোগ করা হয় যে রাজ্যে ত্রুটিপূর্ণ কিট পাঠিয়ে পশ্চিমবঙ্গবাসীকে মৃত্যুর দুয়ারে ঠেলে দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। আজ দুপুরে একটি ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দিয়ে অভিযোগগুলো করেন তৃণমূলের তিন সাংসদ ডেরেক ওব্রায়েন, কাকলি ঘোষদস্তিদার ও সুদীপ বন্দোপাধ্যায়। ডেরেক বলেন, দুহাজার সাতশ বাহাত্তর দিন মোদি ক্ষমতায় এসেছেন কিন্তু প্রকাশ্য সাংবাদিক সম্মেলন করেন নি। তাঁদের লোকাবার কিছু নেই তাই তাঁরা করছেন। ডেরেক বলেন, পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরার জন্যে তাদের কাছ থেকে টিকিট এর টাকা নেওয়া হচ্ছে। অথচ করোনা ত্রাণে প্রধানমন্ত্রীর ফান্ডে দেদার অর্থ জমা পড়ছে, তার থেকে এই ক্ষুধার্ত শ্রমিকদের টিকিট এর টাকা কেন্দ্রের দেওয়া উচিত ছিল।
রাজ্য সরকার করোনা তথ্য গোপন করছে বলে যে অভিযোগ উঠছে সেই সম্পর্কে সুদীপ বন্দোপাধ্যায় বলেন, রাজ্য অনেক স্বচ্ছতা নিয়ে কাজ করছে কেন্দ্র বপরং অস্বচ্ছ। ডেরেক ওব্রায়েম বলেন, কেন্দ্রের পিক আই বি বুধবার টুইট করে বলেছে বুধবার এখন পর্যন্ত আটশো চল্লিশ জন আক্রান্ত হয়েছে, সেখানে পশ্চিমবঙ্গ আক্রান্তের সংখ্যা জানাচ্ছে ন শো চল্লিশ। তাহলে স্বচ্ছ কারা ? রাজ্যপালের নানা টুইট প্রসঙ্গে তৃণমূলের বক্তব্য, উনি রাজ্যের সব থেকে মহার্ঘ বাড়িতে থেকে চা কফি খেতে খেতে টুইট করুন। যতদিন করোনা চলবে, তৃণমূল এই বালখিল্যপনার কোনো জবাব দেবে না। অর্থ্যাৎ একথা বলতে দ্বিধা নেই যে লকডাউন এর আকাশে বারুদের গন্ধ মিলছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
সুপল
৬ মে ২০২০, বুধবার, ৭:২১

মানবজমিন এখন আর শুধু বাংলাদেশকে নিয়েই পড়ে থাকে না। পৃথিবীর সব বাংলাভাষীদের পত্রিকা হয়ে উঠেছে এখন। সারা দুনিয়ার বাংলাভাষীদের মধ্যেই এর পাঠক আছে। তাই অন্যান্য খবরের সাথে যে কোনো দেশের বাংলাভাষীদের সাথে সম্পর্কিত খবরই থাকতে পারে এ পত্রিকায়। আরো এগিয়ে যাক মানবজমিন।

Kazi
৬ মে ২০২০, বুধবার, ৫:৫৮

All donations he put aside for expenses of next election of the party

Gopal Das
৬ মে ২০২০, বুধবার, ৩:১৯

তাতে আমাদের কি?

অন্যান্য খবর