× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ১ জুন ২০২০, সোমবার
কলকাতা কথকতা

করোনার কোপ এবার বাংলা সংবাদমাধ্যমে, বেতন কমছে বহু প্রতিষ্ঠিত সংবাদপত্রে

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা | ৯ মে ২০২০, শনিবার, ১০:০০

অশনি সংকেত দেখা দিয়েছিল আগেই, এবার তা বাস্তবতার চেহারা নিলো। সর্বভারতীয় কয়েকটি সংবাদ মাধ্যমের অনুসরণ করলো কলকাতাও। করোনা ভাইরাস এর দাপটে টাইমস অফ ইন্ডিয়া, এম ডি টি ভি, হিন্দুর পথ অমুসরণ করলো কলকাতার নামী সংবাদপত্রগুলো। উল্লেখিত সংবাদমাধ্যমগুলোর কর্মীদের বেতনে কাটছাঁট করা হয়েছে আগেই। কেউ কেউ চাকরিও হারিয়েছেন। কলকাতার সংবাদপত্র গুলোতে কাউকে কর্মহীন হতে হয়নি। তবে বেতন কমানো হয়েছে উল্লেখযোগ্য ভাবে। এশিয়ার অন্যতম সেরা সংবাদপত্র প্রতিষ্ঠান আনন্দবাজার পত্রিকায় প্রতিবছর পয়লা বৈশাখে ইনক্রিমেন্ট ও প্রমোশন ঘোষণা করা হয়।
এবার এক নোটিশ এ জানানো হয়েছে করোনার কারণে কোনো বেতন বৃদ্ধি অথবা প্রমোশন এবার হবেনা। শুধু তাই নয়, যে কর্মীরা বার্ষিক বারো লক্ষ টাকা বেতন পান তাঁদের মাইনে কমবে। টাইমস গ্ৰুপ এর বাংলা সংস্করণ এই সময় কর্মীদের মূল বেতনের আট শতাংশ এবং অন্য আর্থিক সুবিধার পাঁচ শতাংশ কাটার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমান্দাবাজারে যেমন বার্ষিক বারোলাখিদের ওপর কোপ পড়েছে, এই সময়তে তা নয়। সব কর্মীরই বেতন কমছে। আজকাল সংবাদপত্রে সব কর্মীর বেতন তিরিশ শতাংশ কমানোর নোটিশ পড়েছে। কর্মী ইউনিয়ন অবশ্য এই বেতন কাটার বিষয়টি নিয়ে আদালতে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন। মোদি সরকারের শ্রমমন্ত্রক অবশ্য এই লকডাউন এর মধ্যে কর্মী ছাঁটাই এবং বেতন না কমানোর আবেদন জানিয়েছে সংবাদ মাধ্যমসহ অন্য সব নিয়োগকর্তাদের। কিন্তু বিভিন্ন শিল্পে করোনার কারণে যে সঙ্গিনী অবস্থা তাতে মালিকপক্ষও নিরুপায় হয়ে পড়ছে বলে খবর। ভারতে এক সংবাদপত্র শিল্পেই ক্ষতির পরিমাণ পনেরো হাজার কোটি টাকার।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর