× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৬ জুন ২০২০, শনিবার

'নোংরা' ঘরে পূজার কোয়ারেন্টিন

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক | ২০ মে ২০২০, বুধবার, ৩:৪৭

'নোংরা' ঘরে বলিউড অভিনেত্রী পূজা বেদীকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয় বলে জানান তিনি। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন হবু স্বামী মানেক কন্ট্রাক্টর। এ নিয়ে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।
গোয়া থেকে মুম্বইতে যাওয়ার সময় আন্তঃরাজ্য সীমান্তে করোনা পরীক্ষার জন্য তাদের গোয়া হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে কোভিড ১৯-এর পরীক্ষার পর একদিন কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয় তাদের। আর এ নিয়েই ক্ষোভে ফুঁসে ওঠেন পূজা।
এর কারণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, গোয়া প্রশাসন যে ঘরে তাকে এবং মানেক কন্ট্রাক্টরকে কোয়ারেন্টিনে রাখে, তা দেখলে যে কেউ চমকে যাবেন। সেখানে বিছানার চাদর যেমন নোংরা তেমনি ঘরের আসবাবপত্রেও লেগেছিল নোংরা। যাকে ভাইরাসের আতুঁড়ঘর বললেও অযৌক্তিক বলা হয় না বলে উল্লেখ করেন তিনি। শুধু তাই নয়, যে ঘরে তাদের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়, সেই ঘরে থাকলে যে কোনো মুহূর্তে যে কেউ ভাইরাসে আাক্রান্ত হতে পারেন বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেন এই অভিনেত্রী।
লকডাউনের আগে গোয়ার বাড়িতে যান পূজা। হবু স্বামী মানেক কন্ট্রাক্টরের সঙ্গেই তার গোয়ার বাড়িতে যান তিনি। সেখানে গিয়েই আটকে পড়েন তারা। গোয়ার বাড়ি থেকে মুম্বইতে ফিরতে গিয়েই আন্তঃরাজ্য সীমান্তে সরকারি নিয়ম মেনে করা হয় কোভিড ১৯-এর পরীক্ষা। এরপরই তাদের এক রাতের জন্য সেখানে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়। যা নিয়ে ক্ষোভ উগরে দেন পূজা বেদী।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর