× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৬ জুন ২০২০, শনিবার

টঙ্গীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ধর্ষণ মামলার আসামি নিহত

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, টঙ্গী থেকে | ২২ মে ২০২০, শুক্রবার, ৫:১৮

গাজীপুরের টঙ্গীতে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে আবু সুফিয়ান নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২ টার দিকে টঙ্গীর মধুমিতা  রেললাইন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। র‌্যাবের দাবি, নিহত আবু সুফিয়ান চাঞ্চল্যকর শিশু চাঁদনী (৭) হত্যা ও ধর্ষণের প্রধান আসামি। বিষয়টি নিশ্চিত করে র‌্যাব-১ এর গাজীপুর  কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, গত ১৬ মে টঙ্গী মধুমিতা রেলগেট এলাকার একটি ময়লার স্তুপ থেকে চাঁদনী নামের প্রথম শ্রেণীর মাদরাসার ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই শিশুকে ধর্ষণের পর গলা টিপে এবং দুই পায়ে আঘাত করে নির্মমভাবে হত্যা করা হয় বলে তদন্তে উঠে আসে। এ ঘটনায় ১৭ মে রাত আড়াইটার দিকে টঙ্গী পূর্ব থানাধীন রেলস্টেশন থেকে মো. নিলয় (১৫) নামের এক তরুণকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরদিন গ্রেপ্তার নিলয় আদালতে আবু সুফিয়ানসহ ওই শিশুকে ধর্ষণ করে মর্মে জবানবন্দি দেয়। তদন্তে জানা যায়, শুধু এই শিশু নয়, আরও ৪/৫টি ধর্ষণের ঘটনা সাথে জড়িত এই আবু সুফিয়ান।
গ্রেপ্তারে নিলয়ের দেয়া তথ্যে অভিযানে নামে র‌্যাব-১ । গোপন তথ্যের ভিত্তিতে জানা যায় সুফিয়ান টঙ্গী মধুমিতা রেললাইন এলাকায় বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিচ্ছে। ওই তথ্যে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে র‌্যাব-১ অভিযানে যায়। চতুর সুফিয়ান র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি বর্ষণ করে। র‌্যাবও আত্মরক্ষার্থে গুলি ছোড়ে। বন্ধুরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয় সিরিয়াল ধর্ষক আবু সুফিয়ানের মরদেহ। একই ঘটনায় এএসআই আতোয়ার ও কনস্টেবল সেলিম নামে দুই র‌্যাব সদস্য আহত হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর