× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৩ জুলাই ২০২০, শুক্রবার

করোনায় প্রাণ গেল ৭ ব্যাংক কর্মকর্তার

এক্সক্লুসিভ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | ৩১ মে ২০২০, রবিবার, ৭:৩১

মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত দুই মাসে ৭ ব্যাংক কর্মকর্তার মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া একজন ব্যাংক পরিচালকও মৃত্যুবরণ করেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন ৫৬ জন কর্মকর্তা।
করোনায় মারা গেছেন- সিটি ব্যাংকের মানবসম্পদ বিভাগের মুজতবা শাহরিয়ার, সোনালী ব্যাংকের প্রিন্সিপাল অফিসার (পিও) মাহবুব এলাহী, রূপালী ব্যাংকের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) সহিদুল ইসলাম খান, এনসিসি ব্যাংকের চট্টগ্রাম আগ্রাবাদ শাখার অ্যাসিসটেন্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট জামশেদ হায়দার চৌধুরী, উত্তরা ব্যাংকের শান্তিনগর শাখার কর্মকর্তা ওয়াহিদ মর্তুজা, জনতা ব্যাংকের লোকাল অফিসের এডমিন শাখার এক্সিকিউটিভ অফিসার হাসিবুর রহমান এবং সিটি ব্যাংকের অ্যাসিসটেন্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট আবু সাঈদ। এছাড়া করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন দেশের অন্যতম শিল্পপতি এস আলম গ্রুপ ও এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের পরিচালক মোরশেদ আলম।
সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে ৫৬ জন ব্যাংকার আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছেন সোনালী ব্যাংকের ৩০ কর্মকর্তা। এরপরই রয়েছে বেসরকারি ইসলামী ব্যাংকের ১০ জন। এছাড়া অগ্রণী ব্যাংকের ৩ জন, রূপালী ব্যাংকের ৩ জন, সাউথইস্ট ব্যাংকের ৩ জন, .সিটি ব্যাংকের ২ জন, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের ২ জন, রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের ১জন ও মার্কেন্টাইল ব্যাংকের ১ জন।
সবমিলিয়ে ৫৬ ব্যাংককর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। জানা গেছে, মৃতদের মধ্যে গত ২১শে মে জনতা ব্যাংকের লোকাল অফিসের কর্মকর্তা হাসিবুর রহমান ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। গত ১৭ই মে রাতে রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী ব্যাংকের প্রিন্সিপাল অফিসার (পিও) মাহবুব এলাহী কুমিল্লায় নিজ বাড়িতে মারা যান। ১৫ই মে রূপালী ব্যাংকের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) সহিদুল ইসলাম খান রাজধানীর কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।
এর আগে দ্য সিটি ব্যাংকের দুজন মারা যান। তাদের মধ্যে ১২ই মে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আবু সাঈদ নামের এক কর্মকর্তার মৃত্যু হয়। তিনি ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে সেন্ট্রাল ক্লিয়ারিং বিভাগের অ্যাসিসটেন্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন। গত ২৬শে এপ্রিল ব্যাংকটির মানবসম্পদ বিভাগের মুজতবা শাহরিয়ার নামের এক কর্মকর্তা মুগদা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এর বাইরে করোনা উপসর্গ নিয়ে চট্টগ্রামের আরো দুই ব্যাংক কর্মকর্তা মারা যায় বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।
করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বেশ কয়েকটি ব্যাংকের পরিচালক। এর মধ্যে হা-মীম গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক একে আজাদ রয়েছেন। তিনি শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের পরিচালক। এছাড়া রয়েছেন করোনায় আক্রান্ত মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের (এমটিবি) প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও পরিচালক সৈয়দ মঞ্জুর এলাহীও।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর