× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৩ জুলাই ২০২০, শুক্রবার
তারকা যখন ঘরে

চেষ্টা করছি মানুষের পাশে দাঁড়া‌তে -মিলা ইসলাম

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ২ জুন ২০২০, মঙ্গলবার, ৮:৩৮

করোনাভাইরাসের কারণে গত দুই মাস ধরে লকডাউন চলেছে। এই সময়ে অন্য সবার মতো শোবিজ তারকারা ঘরে অবস্থান করছেন। এখনও তারকারা বেশিরভাগই ঘরেই থাকছেন। কারণ সামাজিক দূরত্বকেই করোনাভাইরাস প্রতিরোধের বড় উপায় হিসেবে ধরা হচ্ছে। এই সময়ে ঘরে থাকছেন পপ তারকা মিলা ইসলামও। ঘরে থেকেই পুরো রমজান জুড়ে তিনি সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন নিম্নআয়ের মানুষের দিকে। পাশাপাশি প্রতিবেশী ও নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য তৈরি করেছেন ইফতার ও সেহরিও। সব মিলিয়ে পুরো লকডাউনজুড়েই নিম্ন আয়ের লোকদের সহায়তার চেষ্টা করেছেন তিনি।
মিলা বলেন, লকডাউনের কারণে বাসায় থাকছি। তবে নিম্নআয়ের মানুষদের জন্য মন কাঁদছে। কারণ তাদের আয় নেই বললেই চলে। ঘরে খাদ্যসামগ্রীও নেই। সে কারণে যতটুকু সম্ভব চেষ্টা করছি মানুষের পাশে দাড়াতে। এর বাইরে ঘরে থেকে পরিচিতজনদের ফোন ও ফেসবুকের মাধ্যমে খোঁজখবর নেয়ার চেষ্টা করছি। তাছাড়া ইউটিউব চ্যানেলে নিয়মিত ভিডিও দিচ্ছি। লকডাউনে ইউটিউবে সরব হয়েছি বলতে পারেন। বিভিন্ন ধরনের রেসিপিসহ আমার লাইফস্টাইলের কিছু ভিডিও প্রকাশ করেছি। অনেক ভালো সাড়া মিলছে এসব ভিডিও থেকে। ভাবছি ভিডিও দেয়াটা কনটিনিউ করবো। এদিকে চলতি অবস্থা নিয়ে মিলা বলেন, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে আমরা একটি অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতির সম্মুখিন হয়েছি। এটা কারোই কাম্য ছিলো না। তবে এখান থেকে বের হতে হলে আমাদের অবশ্যই সচেতন হতে হবে। বাইরে না বের হওয়াই সব থেকে ভালো। আর যদি বাইরে অতি প্রয়োজনে বের হতে হয় তবে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। আর হাঁচি কাশি আসলে টিস্যু ব্যবহার করতে হবে। না হলে কনুই ব্যবহার করতে হবে। আর যে যে নিয়মের কথা বলা হচ্ছে তা পালন করতে হবে। আমরা সবাই সচেতন হলেই দ্রুত এই অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পাবে বলেই মনে করি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর