× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ১১ জুলাই ২০২০, শনিবার

প্রণোদনার অর্থ মোবাইল অ্যাকাউন্টে দেয়ার নির্দেশ অর্থ মন্ত্রণালয়ের

অনলাইন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | ৩ জুন ২০২০, বুধবার, ৫:৫৪

করোনা ভাইরাসের কারণে কৃষক ও প্রান্তিক উদ্যোক্তাদের জন্য ঘোষিত প্রণোদনা মোবাইল অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে পৌঁছে দিতে ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়। ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজ বাস্তবায়নে ব্যাংকগুলোকে ডিজিটাল ওয়ালেটভিত্তিক বা অ্যাপসভিত্তিক ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবা চালুরও নির্দেশ দিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে এবিষয়ে একটি চিঠি বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ও বিশেষায়িত ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও চেয়ারম্যানদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে সৃষ্ট অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলার জন্য সরকার এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৩ হাজার ১১৭ কোটি টাকার বিভিন্ন আর্থিক প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। এই অংক দেশের জিডিপির (মোট দেশজ উৎপাদন) ৩.০৭ শতাংশ।

ব্যাংকভিত্তিক এসব প্রণোদনা প্যাকেজ বাস্তবায়নে ব্যাংকগুলো বিশেষ করে রাষ্ট্র মালিকানাধীন ব্যাংকসমূহের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলার অনুযায়ী প্রণোদনা প্যাকেজসমূহের সঠিকভাবে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ ও পরিচালনা পর্ষদের কার্যকরভাবে সম্পৃক্ত থেকে যথাসময়ে প্রণোদনা প্যাকেজ বাস্তবায়ন করতে হবে।

এজন্য ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভায় প্রণোদনা প্যাকেজসমূহের বিভিন্ন বিষয়াদি যেমন- প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী বা শিল্প প্রতিষ্ঠান নির্বাচন, সুদের হিসাবায়ন, অর্থায়নের উৎস, ঋণের মেয়াদকাল, ব্যাংক-গ্রাহক সম্পর্কের ভিত্তিতে ঋণ বিতরণে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের ভূমিকা, বাংলাদেশ ব্যাংকে ঋণ অনুমোদন প্রক্রিয়া ইত্যাদি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা হওয়া প্রয়োজন।

যাতে পরিচালনা পর্ষদের প্রতিটি সদস্য, সম্যক ধারণা লাভ করতে পারেন এবং ঋণ দেয়া কার্যক্রমে সিদ্ধান্ত নিতে যথাযথভাবে ভূমিকা রাখতে পারেন। ওয়ান স্টপ সার্ভিসের মাধ্যমে সেবা দেয়া এবং কৃষক ও প্রান্তিক উদ্যোক্তাদের দ্রুততম সময়ে ঋণের অর্থ মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসের (এমএফএস) মাধ্যমে সরাসরি বিতরণের বিষয়েও ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ বিবেচনা করতে হবে।

নির্দেশনামূলক ওই চিঠিতে আরো বলা হয়, বর্তমান বাস্তবতায় করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে নিরাপদ শারীরিক দূরত্ব রক্ষা করা জরুরি। এ পরিস্থিতিতে গ্রাহকদের স্বশরীরে ব্যাংকে গিয়ে ব্যাংকিং সেবা গ্রহণ সংক্রমণ ঝুঁকি বাড়ায়।

তাই অ্যাপস বা ডিজিটাল ওয়ালেট ভিত্তিক ব্যাংকিং সেবা চালু করা হলে গ্রাহকের স্বশরীরে ব্যাংকে আসতে হবে না। আধুনিক ফিন টেক (FinTech) প্রযুক্তি সারা বিশ্বের ব্যাংক লেনদেনকে গ্রাহকের হাতের মুঠোয় নিয়ে এসেছে। মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস (এমএফএস) ও ডিজিটাল ওয়ালেট সেবার মাধ্যমে গ্রাহক সহজেই ঘরে বসে পণ্য ক্রয়-বিক্রয়সহ সব ধরনের ব্যাংক লেনদেন ও পেমেন্ট সেটেলমেন্ট করতে পারেন।

একইসঙ্গে প্রবাসী বাংলাদেশীরাও মানি এক্সচেঞ্জ হাউসে না এসে ঘরে বসে অর্থ পাঠাতে পারবেন।
গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী যুগোপযোগী প্রযুক্তিনির্ভর ব্যাংকিং প্রডাক্ট চালুর মাধ্যমে গ্রাহকের কাছে বিভিন্ন সেবা পৌঁছানো যেতে পারে।

ব্যাংকিং খাতে প্রযুক্তি ব্যবহারে বিদেশি সফটওয়্যার কোম্পানির ওপর নির্ভর না করে দেশীয় সফটওয়্যার ব্যবহারের জন্য তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা রয়েছে।

এ অবস্থায় সরকার ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজসমূহ সঠিকভাবে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে পরিচালনা পর্ষদ সভায় বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলারসমূহ বিস্তারিত আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ এবং বর্তমানে কোভিড-১৯ জনিত সৃষ্ট পরিস্থিতিতে নিরাপদ শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে নিরাপদ ব্যাংকিংয়ের জন্য ডিজিটাল ওয়ালেটভিত্তিক বা অ্যাপসভিত্তিক ও ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবা প্রচলনের উদ্যোগ নেয়ার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
মিরন তালুকদার
৩ জুন ২০২০, বুধবার, ৯:৫৬

ইসলামি বেংক নেএকোনা মেনেজার ও সৌসাল ইসলামী বেংক নেএকোনা সকলেই মিলের বড় সড় ঋণ অনেক টাকা দুরনিতি হয়েছে এই ঋণ জমি মর্গেজ দাম যাচাই করোন দেখবেন সুদকুর বেংক মালিক মেনেজার কি করেছে 24 বৎসর সত্য বেবসা করে সরকারের টেক্স বেট দিয়ে আর মেনেজার ইসলামী বেংক নামেই কম দামের জমি বেশি দামে সরকারের দুরনিতি বাজ ধুদক একদিন সবার চেহারা ছিনবে এরা করোনা ভাইরাস সরকার এদের খে দরুন ?

মিরন তালুকদার
৩ জুন ২০২০, বুধবার, ৯:৩৫

অনুদান ফান্ডে হতে ঋণ এস এমই উন্নতি করা উপায় সরকারের আর এই অনুদান ফান্ডে যদি বেংক মালিক মেয়েদের কমপানি মালিক মিলেমিশে সব টাকা লুঠ করে বিদেশ পাচার করে দিবে সরকারের কোসাগারে জমা করুন সটিক বিচার করুন সাদারন ঋণ এস এমই উন্নতি করা উপায় ঋণ যাকেই দিবেন তাঁর মোবাইল নং অনুদান ফান্ডে ঋণের টাকা দিন দেখবেন সুদকুর বেংক মালিক দরা খাইবে আর্থিক অনুদান ফান্ডে হতে ঋণ পাবে সাধারণ মানুষ যারা লুঠ করে বিদেশ পাচার করে সরকারের সাধারণ জনগণের বেবসা বন্ধ করে তাদের সাজানো নাটক সরকারি অফিসার একদিন দরই তাদের ঋণ মা শেখ হাসিনা অনুদান ফান্ডে টাকা নিজের হাতেই কমিটির করে মোবাইল নং ঋণ দিলে আমি হলফ করে বলি এই ঋণ কোনও দিন জিবন তাখতে খেলাপি হবেন না ?

মিরন তালুকদার
৩ জুন ২০২০, বুধবার, ৫:২৮

অনুদান ফান্ডে এস এমই ঋন ইসলামি বেংক নেএকোনা ইসলামের নামে টাকা আত্মঘাতী করিবে বেংক মালিক অনুদান ফান্ডে হতে ঋণ টাকা সুদ পরিসুদ করিতে দেখলে কি হয় এই টাকা এস এমই ঋণ কে দেখতে মোবাইল নং অনুদান ফান্ডে ঋণ দিয়ে দিন দেখবেন সুদকুর রা ছিনথে পারেন বেংক মালিক ডাকাতি ছিলেন কোন ঋণ খেলাপি হবে না ? ইসলাম নামে সুদ কুর এজেন্ট দরতে পারেন?

অন্যান্য খবর