× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৮ জুলাই ২০২০, বুধবার

ভুমিদস্যুদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে জাফলংয়ের আজগরের স্মারকলিপি

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ৪ জুন ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৯:৪৫

চিহিৃত ভুমিদস্যদের অত্যাচার ও নির্যাতন থেকে রক্ষা পেতে সহযোগিতা কামনা করে সিলেটের জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছেন জাফলংয়ের নয়াবস্তির বাসিন্দা আজগর আলী। বৃহস্পতিবার তিনি এ স্মারকলিপি প্রদান করেন।
স্মারকলিপিতে তিনি জানান- তার মা মরিয়ম নেছার নামে বন্দোবস্ত নেওয়া নয়াবস্তির ভুমি দখলে নিতে স্থানীয় ভুমিদস্যু ও পাথরখেকো আলিম উদ্দিন, মুতলিব, শাহজাহান সহ কয়েকজনের নেতৃত্বে প্রায় ১০ বছর ধরে তাদের উপর নির্যাতন চলছে। সর্বশেষ ভুমি দখলে নিতে ২৩ শে এপ্রিল ওই চক্র তাদের উপর হামলা চালায়। এ সময় তারা পরিবারের সব সদস্যকে মারধোর করে। এতে তিনি. তার ভাই সহ কয়েকজন গুরুতর আহত হন। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের পর আলীম ও তাল সহযোগিরা আবার ক্ষেপে যায়। মামলা তুলে নেওয়ার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ৬ই মে পুনরায় হামলা চালিয়ে বাড়িতে ভাংচুর এবং লুটপাট ছাড়া তাদের অকথ্য নির্যাতন করে।
এ ঘটনায়ও গোয়াইনঘাট থানায় মামলা হয়েছে। দুটি ঘটনায় আসামিরা কারাবরণ করে। পরে জামিনে বেরিয়ে আসে ২৯ শে প্রাণে হত্যার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। এ ঘটনায় থানায় সাধারন ডায়েরী করা হয়েছে।
হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা চালিয়ে তারা পাথর উত্তোলনের জন্য বন্দোবস্ত জমি জোরপূর্বক দখলে রেখেছে। স্মারকলিপিতে তিনি জানান- আলিম উদ্দিন ও তার বাহিনীর নির্যাতন, অত্যাচারে তারা অতিষ্ট। যেকোনো তারা আবারো হামলা চালিয়ে জীবন বিপন্ন করতে পারে। স্মারকলিপিতে আজগর আলী তদন্তপূর্বক ভুমিদস্যুদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন এবং তাদের নিরাপদ বসবাসের সুযোগ দেওয়ার জন্য প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন।


চিহিৃত ভুমিদস্যদের অত্যাচার ও নির্যাতন থেকে রক্ষা পেতে সহযোগিতা কামনা করে সিলেটের জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছেন জাফলংয়ের নয়াবস্তির বাসিন্দা আজগর আলী। বৃহস্পতিবার তিনি এ স্মারকলিপি প্রদান করেন।
স্মারকলিপিতে তিনি জানান- তার মা মরিয়ম নেছার নামে বন্দোবস্ত নেওয়া নয়াবস্তির ভুমি দখলে নিতে স্থানীয় ভুমিদস্যু ও পাথরখেকো আলিম উদ্দিন, মুতলিব, শাহজাহান সহ কয়েকজনের নেতৃত্বে প্রায় ১০ বছর ধরে তাদের উপর নির্যাতন চলছে। সর্বশেষ ভুমি দখলে নিতে ২৩ শে এপ্রিল ওই চক্র তাদের উপর হামলা চালায়। এ সময় তারা পরিবারের সব সদস্যকে মারধোর করে। এতে তিনি. তার ভাই সহ কয়েকজন গুরুতর আহত হন। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের পর আলীম ও তাল সহযোগিরা আবার ক্ষেপে যায়। মামলা তুলে নেওয়ার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ৬ই মে পুনরায় হামলা চালিয়ে বাড়িতে ভাংচুর এবং লুটপাট ছাড়া তাদের অকথ্য নির্যাতন করে। এ ঘটনায়ও গোয়াইনঘাট থানায় মামলা হয়েছে। দুটি ঘটনায় আসামিরা কারাবরণ করে। পরে জামিনে বেরিয়ে আসে ২৯ শে প্রাণে হত্যার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। এ ঘটনায় থানায় সাধারন ডায়েরী করা হয়েছে।
হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা চালিয়ে তারা পাথর উত্তোলনের জন্য বন্দোবস্ত জমি জোরপূর্বক দখলে রেখেছে। স্মারকলিপিতে তিনি জানান- আলিম উদ্দিন ও তার বাহিনীর নির্যাতন, অত্যাচারে তারা অতিষ্ট। যেকোনো তারা আবারো হামলা চালিয়ে জীবন বিপন্ন করতে পারে। স্মারকলিপিতে আজগর আলী তদন্তপূর্বক ভুমিদস্যুদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন এবং তাদের নিরাপদ বসবাসের সুযোগ দেওয়ার জন্য প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর