× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ২ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার

আপাতত নিরাপত্তা নিয়েই ভাবছি - অরিন

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ৫ জুন ২০২০, শুক্রবার, ৮:৫৯

করোনারভাইরাসের কারণে গত প্রায় আড়াই মাস ধরে স্থবির অবস্থা বিরাজ করেছে। কয়েকদিন ধরে লকডাউন তুলে নেয়া হলেও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। বরংচ আমাদের দেশে করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এমন অবস্থার মাঝেই নাটক ও সিনেমার শুটিং শুরু হয়েছে। যদিও অনেক তারকাই এখনই শুটিং করতে নারাজ। চিত্রানায়িকা অরিনও তেমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আপাতত শুটিং করবেন না তিনি। এ বিষয়ে অরিন বলেন, লকডাউন তুলে নেয়ার পর শুটিং শুরু হয়েছে।
নাটক ও সিনেমার কাজের প্রস্তাব এরইমধ্যে এসেছে। কিন্তু এখনই কাজে ফিরতে চাই না। কারণ এখন বের হয়ে শুটিংয়ে অংশ নেয়া রিস্কি। পরিস্থিতি ভালো হলে পরে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবো। লকডাউনে সময় কিভাবে কেটেছে জানতে চাইলে অরিন বলেন, বাসাতেই ছিলাম। একদমই বের হইনি। কারণ করোনা প্রতিরোধের বড় উপায় বলা হচ্ছে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখাকে। তাই পরিবারের সাথে বাসাতেই সুন্দর সময় কাটিয়েছি। তাছাড়া বাসার কাজ করেছি টুকটাক। আর ঈদের পনের দিন আগে অনলাইন শপ শুরু করেছি। নাম রেখেছি 'সেলিব্রিটি কালেকশনস'। আমি আর চিত্রনায়িকা অঞ্জলি সাথী মিলে এই শপ শুরু করেছি। তেমন প্রচারণা করিনি। তবে এখন পর্যন্ত ভালো সাড়া পেয়েছি। হঠাৎ এই চিন্তা কিভাবে মাথায় এলো? উত্তরে অরিন বলেন, অভিনয়ের পাশাপাশি
এক্সপোর্ট ইমপোর্ট বিজনেস করার সব রানিং ছিলো মোটামুটি। ভারতে মিটিংয়ে যাওয়ার কথা ছিল। এর মাঝেই লকডাউন পড়ে সব বরবাদ হয়ে গেলো। তো কি আর করব! বাসায় বসে চিন্তা করলাম অনলাইন থেকে শুরু করি, অভিজ্ঞতা হবে। এভাবেই শুরু করলাম। দেশের ও কলকাতার বেশ কিছু ছবিতে লকডাউনের আগে কাজ করা তো হয়েছে। সেগুলোর কি খবর। কলকাতায় কয়েকটি ছবির শুটিং শেষ করেছি। সেগুলো করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে মুক্তি পাবে। দেশেও পরিস্থিতি ঠিক হলে সিনেমার কাজ শুরু করবো৷ তবে আপাতত নিরাপত্তা নিয়েই ভাবছি। কারণ করোনা পরিস্থিতি খারাপের দিকে যাচ্ছে। তাই বাসাতেই থাকবো। সবার প্রতি আমার অনুরোধ, বাসায় থাকুন প্লিজ। এর কোনো বিকল্প নেই। আর সচেতন থাকুন। জরুরি প্রয়োজনে বাইরে গেলে মাস্ক ব্যবহার করুন। এই পরিস্থিতির মোকাবিলা সবাইকে এক সাথে করতে হবে। তাহলেই করোনার সাথে এই যুদ্ধে জয়ী হবো আমরা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর