× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৩ জুলাই ২০২০, শুক্রবার

পাটমন্ত্রীর এপিএস পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজিকালে ৪ সহযোগিসহ যুবক গ্রেপ্তার

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ থেকে | ৫ জুন ২০২০, শুক্রবার, ৮:৪২

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে পাটমন্ত্রী গাজী গোলাম দস্তগীরের এপিএস পরিচয় দিয়ে একটি শিল্পপ্রতিষ্ঠানের ট্রাক আটকে ২৬ লাখ টাকা চাঁদাদাবির অভিযোগে কামরুজ্জামান হীরা নামে এক যুবককে তার আরও ৪ সহযোগিসহ গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে রূপগঞ্জের গোলাকান্দাইল এলাকা থেকে পুলিশ হীরা ও তার সহযোগিদের গ্রেপ্তার করে। পরে বিকেলে বিশ্বাস অটো সিরামিক এন্ড ব্রিকস টাইলসের ম্যানেজার সাব্বির আহমেদ বাদী হয়ে ৭ জনকে আসামী করে রূপগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, রাজধানী ঢাকার মোহাম্মদপুর থানার রায়ের বাজার মাদ্রাসা গলি এলাকার আবুল কাশেমের ছেলে কামরুজ্জামান হীরা, রূপগঞ্জ উপজেলার সাওঘাট এলাকার তারাজ উদ্দিনের ছেলে মহিউদ্দিন, গোলাকান্দাইল এলাকা নিপেন্দ্র দাসের তাপস দাস, একই এলাকা আমিনুল ইসলামের ছেলে সাজ্জাদ হোসেন, আব্দুল হালিমের ছেলে রনি ভূঁইয়া। এ মামলায় সুমন ও রাজু নামে আরো দুইজন পলাতক রয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে কামরুজ্জামান হীরা নিজেকে পাটমন্ত্রী গাজী গোলাম দস্তগীরের এপিএস পরিচয় দিয়ে এলাকায় বিভিন্ন অপকর্ম করে বেড়াতো।
মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, শুক্রবার দুপুরে রূপগঞ্জ উপজেলার এশিয়ান হাইওয়ে বাইপাস সড়কে বিশ্বাস অটো সিরামিক এন্ড ব্রিকস টাইলসের একটি ট্রাক যাওয়ার সময় কামরুজ্জামান হীরাসহ তার লোকজন গাড়িটির গতিরোধ করে। ওই সময় গাড়িটি আটকে ২৬ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে হীরাসহ তার লোকজন। তাদের টাকা না দিয়ে কোন টাইলস এ পথে যেতে পারবেনা বলে হুমকি প্রদান করে তারা।
ওই সময় ঘটনাস্থল থেকে ঘটনাটি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের জানালে তারা বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে হীরাসহ তার সহযোগিদের গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যায়। এরপর বিকেলে ম্যানেজার সাব্বির বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।
পাটমন্ত্রী গাজী গোলাম দস্তগীরের একটি ঘনিষ্ঠ সূত্র নাম প্রকাশ না করার শর্তে এ প্রতিবেদককে বলেন, হীরার বিরুদ্ধে মন্ত্রীর এপিএস পরিচয় দিয়ে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অবস্থিত বিভিন্ন শিল্পপ্রতিষ্ঠানে চাঁদাবাজির বহু অভিযোগ রয়েছে। গত বছরের ২২ আগষ্ট হীরা বাহিনীর সদস্যরা তুচ্ছ ঘটনায় জিসান হোসেন নামে স্কুল পড়ুয়া এক শিক্ষার্থীকে মাটিতে আছড়ে হত্যা করে।
রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হাসান বলেন, চাঁদাবাজির অভিযোগে হীরাসহ ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা একটি কোম্পানির গাড়ি আটকে চাঁদা দাবি করেছেন এবং টাকা ছাড়া কোন মালামাল যেতে দেবেন না বলে হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ পেয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা হয়েছে।
নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মোঃ জায়েদুল আলম বলেন, পাটমন্ত্রীও তাকে হীরার বিভিন্ন অপকর্মের ব্যাপারে অবহিত করেছেন। শুক্রবার তাকে চাঁদাবাজিকালে হাতে নামে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর