× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৭ জুলাই ২০২০, মঙ্গলবার

হাজীগঞ্জে ২ সনাতন ধর্মাবলম্বীর সৎকারে এগিয়ে আসছে না কেউ, সমাধির সিদ্ধান্ত

বাংলারজমিন

মোরশেদ আলম, চাঁদপুর থেকে | ৬ জুন ২০২০, শনিবার, ৩:১৪

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার পৃথক দুটি স্থানে দুই সনাতন ধর্মাবলম্বী পরোলোকগমন করেন। শুক্রবার রাতে নিজ বাসস্থানে তারা মারা যান। করোনা আতঙ্কে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা মৃতদের সৎকার কাজে এগিয়ে আসছে না। পরিবারবর্গ পড়েছেন বিপাকে। বাধ্য হয়ে তাদেরকে মাটিতে সমাধিস্থ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পরিবার দু’টি। মৃত দু’জন হলেন, হাজীগঞ্জ বাজারের স্বর্ণের ব্যবসায়ী রঞ্জীব কুমার রায় (৫৫) ও উপজেলার ৬নং বড়কূল পূর্ব ইউনিয়নের সেন্দ্রা গ্রামের রাধা কৃষ্ণ দাস (৬০)।
হাজীগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী রঞ্জিব কুমার রায়ের মৃতদেহ হাজিগঞ্জ পৌর শ্মশানে নেয়া হলে ফেরত পাঠানো হয়।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে পৌর ৫নং ওয়ার্ডের শ্মশান কমিটির সদস্য সঞ্জু সাহা মুঠোফোনে জানান, আমাদের শ্মশানে মৃতদেহ নিয়ে আসা হলে আমাদের কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ফেরত পাঠানো হয়। এখন তাকে তার বাড়িতে সমাধি করা হবে বলে জানান তিনি।
অন্যদিকে, সেন্দ্রার মৃত রাধা কৃষ্ণের ছেলে রিপন বলেন, আমার বাবা শুক্রবার রাত ১টা ২০ মিনিটে মারা যান। আজ শনিবার তাকে হাসপাতালে নেয়ার কথা ছিল।
কিন্তু বাবা না ফেরার দেশে চলে যান। তার মৃত্যুর পর সৎকার কাজে কেউ এগিয়ে আসছে না। এখন আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি নিজের বাড়িতে মাটিতে সমাধি করবো।
হাজীগঞ্জ পূজা উদযাপন পরিষদের সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করেও তাদের বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর