× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৩ জুলাই ২০২০, শুক্রবার

সেনবাগে প্রতিবন্ধীর স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা, ভাংচুর

বাংলারজমিন

সেনবাগ(নোয়াখালী)প্রতিনিধি | ৬ জুন ২০২০, শনিবার, ৬:২৬

নোয়াখালী সেনবাগের  বীজবাগ ইউনিয়নের পশ্চিম বীজবাগ গ্রামে আয়েশা খাতুন (৩০)
নামে এক প্রতিবন্ধীর স্ত্রী কে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে প্রতিপক্ষ। শুক্রবার সন্ধ্যায় স্হানীয় লোকজন রক্তাক্ত অবস্হায় তাকে উদ্ধার করে সেনবাগ সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করেছে। গৃহবধূ  আয়েশা খাতুন ওই গ্রামের কেরামত আলী ব্যাপারী বাড়ীর প্রতিবন্ধী আনোয়ার হোসেন পলাশের স্ত্রী।
 স্হানীয় একাধিক সূত্র জানায় সম্পত্তি সংক্রান্ত  বিরোধের জের ধরে একই বাড়ির আবদুল  ওহাব মানিক,আবদুল হালিম দুলাল সহ তাদের পরিবারের লোকজন প্রতিবন্ধী  পলাশের সম্পত্তি জবরদখল করতে দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে প্রতিবন্ধীকে মারধর ও বসতঘরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর চালায়। এ সময় প্রতিপক্ষের লোকজন  গৃহবধূ আয়শার মাথায় কিরিচ দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে।

হাসপাতালে আহত আয়েশা বেগম গনমাধ্যম কে জানান, আনোয়ার হোসেন পলাশ মানসিক প্রতিবন্ধী হওয়ায় ও তার স্বামীর কোন ভাই না থাকার সুযোগে প্রতিপক্ষ  আয়েশা বেগমের স্বামীর পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া সম্পত্তি গ্রাস করতেই  এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

এ ব্যাপারে আয়েশা বেগম বাদী হয়ে সেনবাগ থানায় লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন।
খবর পেয়ে সেনবাগ থানার এসআই তারেকুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
 বর্তমানে ভুক্তভোগীর পরিবার প্রাননাশের আশংকায় দিনাতিপাত করছে।
শনিবার বিকেলে সেনবাগ থানার ওসি আবদুল বাতেন মৃধা বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর