× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৯ আগস্ট ২০২০, রবিবার
কলকাতা কথকতা

শতবর্ষে হেমন্ত, মিঠুন ঊনসত্তর, আজ দুই কৃতী বাঙালির জন্মদিন

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা | ১৬ জুন ২০২০, মঙ্গলবার, ১০:১৪

শুধু এপার বাংলা গঙ্গা নয়, ওপার বাংলা পদ্মাও সম্মোহিত হয়েছে তাঁদের গানে, অভিনয়ে। আজ তাঁদের জন্মদিন। একজন বরণ্য গায়ক হেমন্ত মুখোপাধ্যায়। অন্যজন শক্তিশালী অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী। একজন ইতিমধ্যেই প্রয়াত। অন্যজন লকডাউনে বন্দী বেঙ্গালুরুতে। দু’জনকেই আজ স্মরণ করছে বাঙালি। মানবজমিনের পক্ষ থেকেও রইলো বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি।
ধুতি, শার্ট পরা হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের মন্দ্রিত কণ্ঠস্বর আজও দুই বাংলার মানুষের মনেই অম্লান। আজও হেমন্তর ডিস্ক বিক্রি হয় ঢাকায়, চট্টগ্রামে, খুলনায় কিংবা রাজশাহীতে। আধুনিক কিংবা রবীন্দ্র সংগীতে সমান দক্ষ হেমন্ত পরে মুম্বাইতে সংগীত পরিচালক হিসেবেও খ্যাতি পেয়েছিলেন। আর মিঠুন চক্রবর্তী? তাঁর মতো ভার্সেটাইল অভিনেতা বড় বিরল। মৃগয়া থেকে ডিসকো ডান্সার - সব ছবিতে তিনি সমান সাবলীল। লকডাউনে বেঙ্গালুরুতে আটকে আছেন মিঠুন। পরিজন সব মুম্বাইতে। লকডাউন এর মধ্যেই বাবা বসন্ত চক্রবর্তী প্রয়াত হয়েছেন মুম্বাইতে। মিঠুন যাতে বাবার শেষকৃত্যে যেতে পারেন তাই কর্ণাটক সরকার বিশেষ বিমানের ব্যবস্থা করতে চেয়েছিলো। লকডাউনের সেই ঘোর সময়ে মিঠুন রাজি হননি। বলেছিলেন, হাজার হাজার মানুষ যে সুবিধা পাচ্ছেনা, আমি সেই সুবিধা নিতে চাইনা। এই হলেন মিঠুন চক্রবর্তী। যিনি বেঙ্গালুরু তে বসে জন্মদিনের শুভেচ্ছার জবাবে বলেছেন, সবাই ভালো থাকুন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর