× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ১১ জুলাই ২০২০, শনিবার

ময়মনসিংহে মানবপাচারী চক্রের সদস্য মাসা গ্রেপ্তার

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ থেকে | ২৮ জুন ২০২০, রবিবার, ৪:৪১

উচ্চ বেতনের প্রলোভন দেখিয়ে বিদেশে মানব পাচারকারী দালাল চক্রের অন্যতম সদস্য কাজী সালেহ আহাম্মদ ওসমানী মাসাকে (৩৬), জেলার ফুলপুর উপজেলার তিতপুর গ্রাম থেকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। সে ঐ গ্রামের কাজী শিব্বির আহম্মেদ এর ছেলে। শনিবার তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ডিবির ওসি শাহ কামাল আকন্দ জানান, প্রায় সাড়ে ১৪লাখ টাকার বিনিমিয়ে একটি দালাল চক্র উচ্চ বেতনের প্রলোভন দেখিয়ে ফুলপুর উপজেলার চর আসাবট গ্রামের আঃ গফুরের ছেলে মোকছেদুল ইসলাম (২৮),পারতলা গ্রামের মৃত-রমজান আলী ছেলে মোঃ আকরাম হোসাইন (৩৩), বক্তারপুর গ্রামের আলম মিয়ার ছেলে মোরসালিন মিয়া (২২), ও দ্বারাকপুর গ্রামের আলাল উদ্দিনের ছেলে মোঃ এরশাদ আলী (২০)কে ভিয়েতনাম পাঠায়। উচ্চ বেতনের চাকুরি দেওয়ার আশ্বাসে স্থানীয় এক দালালের প্ররোচনায় ২জনের কাছ থেকে ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ২ জনের কাছ থেকে ৩ লাখ, ৭০ হাজার টাকা করে মোট চৌদ্দ লক্ষ চল্লিশ হাজার টাকার বিনিময়ে
ভিয়েতনাম পাঠায়। বর্তমানে ভিকটিমগন ভিয়েতনামে নির্যাতনের স্বীকার হচ্ছে এবং মানবেতর জীবন যাপন করছে। এই মর্মে বাংলাদেশ পুলিশের ফেইসবুক পেইজে একটি পোষ্ট করে। পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স উক্ত পোষ্টটির গুরুত্ব বিবেচনা করে ময়মনসিংহ জেলার পুলিশ সুপারকে তথ্য প্রদান করেন।
ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার, মুহাম্মদ আহমার উজ্জামান বিষয়টি প্রাথমিক তদন্ত মাধ্যমে দালাল চক্রকে সনাক্ত করে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থ্ াগ্রহণের জন্য জেলা গোয়েন্দা পুলিশকে নির্দেশনা প্রদান করেন। শনিবার উক্ত দালাল চক্রের অন্যতম সদস্য কাজী সালেহ আহাম্মদ ওসমানী (মাসা) (৩৬), নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা মিলেছে। এ ব্যাপারে ভিকটিমের আতœীয় ইউসুফ আলী (৩০) ফুলপুর থানায় গতকাল শনিবার ২৭জুন/২০ অভিযোগ করলে ফুলপুর থানায় ২০ নং মামলা রুজু করা হয়। আজ গ্রেফতারকৃত আসামীকে রিমান্ড চেয়ে বিজ্ঞ আদালতে সোর্পদ করেছে পুলিশ ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর