× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৩ আগস্ট ২০২০, সোমবার

প্রতিবাদ

বাংলারজমিন

| ৪ জুলাই ২০২০, শনিবার, ৮:০০

গত ২৯শে জুন দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার ৭নং পৃষ্ঠায় প্রকাশিত “কুলাউড়ায় ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ” শিরোনাম শীর্ষক সংবাদটির প্রতিবাদ জানিয়েছেন হাজীপুর ইউপি’র ৪নং ওয়ার্ডের সদস্য শেখ আবদুর রউফ। প্রতিবাদলিপিতে তিনি দাবি করেছেন, মনগড়া ও মিথ্যা তথ্য দিয়ে সংবাদ প্রকাশ করিয়ে আমার মানহানি ঘটানোর অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে একটি মহল। সংবাদে বলা হয়েছে, সরকারি সুযোগ-সুবিধা পেতে আমাকে খুশি করতে হয় যাহা সম্পূর্ণ মিথ্যা। বিধবা, বয়স্কভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতার বহি পূর্বের চেয়ারম্যান, সাবেক মহিলা ইউপি সদস্যা এবং ২০০৮ সালের পূর্বের মেম্বারের সময়ে এবং কুলাউড়া সমাজসেবা অফিসের কৈরী বাবু পূর্বে তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করেছেন। যা এখনো বিদ্যমান। সরকারি নলকূপ ঠিকাদার বসানোর কাজ করে থাকেন। এখানে মেম্বারের কোনো হাত নেই।  তিনি আরো বলেন, তার ওয়ার্ডে ভোটার সংখ্যা ২৮শ’। এর মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তায় ১০৮ জনের বরাদ্দ পেয়েছেন।
অথচ পাওয়ার যোগ্য লোক কমপক্ষে ৫শ’ জন। এদের মধ্যে যাদের ২৫শ’ টাকার তালিকায় নাম ঢোকেনি তাদের মধ্যে আব্দুল আজিজ, জয়নাল আবেদীন ও আব্দুল হান্নান অর্থবিত্তের মালিক হওয়া সত্ত্বেও নাম ঢোকানোর চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করেছেন। এছাড়া রনচাপ শৈলেন্দ্রের বাড়ির পুল হতে অমরেন্দ্র সর্দারের বাড়ির ইট-সলিং পর্যন্ত রাস্তা মেরামতের জন্য প্রকল্প বরাদ্দ আসলে করোনার পূর্ব পর্যন্ত আমি ৯০% কাজ সম্পন্ন করি। করোনাকালীন সময়ে বাকি ১০% ভাগ কাজ করতে পারিনি এবং প্রকল্পের সিংহভাগ বিল এখনো উত্তোলন করতে পারিনি। কাজেই এখানে দুর্নীতির প্রশ্ন কিভাবে আসলো। একটি মহল আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করে আমাকে সামাজিকভাবে হেয় করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। আমি প্রকাশিত সংবাদের সঙ্গে ভিন্নমত পোষণ করছি এবং সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর