× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৭ আগস্ট ২০২০, শুক্রবার

শিল্পার স্মৃতি রোমন্থন

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক | ৫ জুলাই ২০২০, রবিবার, ৬:৫০

সরোজ খানের সঙ্গে প্রথম সাক্ষাৎ এর পর আমি কেঁদেই ফেলেছিলাম- লিখলেন শিল্পা শেঠি। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় বিখ্যাত কোরিওগ্রাফার সরোজ খানের। এই ইন্ডাস্ট্রিতে প্রত্যেক তারকার পেছনে সরোজের অবদান খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ৫৭ বছরের দীর্ঘ কর্মজীবনে প্রচুর সিনেমায় কাজ করেছেন তিনি। তার প্রতিটি নাচেই থাকতো নতুন চমক। বলা যায় ইন্ডাস্ট্রির নতুন ট্রেন্ড  সেট করে দিয়েছেন সরোজ। জীবনে তিনটি জাতীয় পুরস্কার রয়েছে তার ঝুলিতে। তবে ইদানীং কাজ না পাওয়ার কথা তিনি বলেছিলেন সংবাদ মাধ্যমকে।
সরোজ চলে যাওয়ার পর শিল্পা তার স্মৃতি রোমন্থন করলেন। তিনি জানালেন, সরোজের সঙ্গে তার সম্পর্ক একেবারে ক্যারিয়ার শুরুর প্রথম দিন থেকেই। শিল্পা ফিরে গেলেন ফ্ল্যাশব্যাকে। বললেন অনেক স্মৃতি রয়েছে সরোজ খানের সঙ্গে। ‘ম্যায় খিলাড়ি তু আনাড়ি’ সিনেমার সেট থেকে একটি ছবি শেয়ার করে শিল্পা লিখেছেন, তুমি আমাদের ছেড়ে চলে গেছ। কিন্তু ওই মুহূর্তগুলো আমি কখনও ভুলবো না। ‘কিতাব’ ছবির কোরিওগ্রাফের জন্য প্রথম যখন তোমার সঙ্গে দেখা হলো, আমি তোমাকে জড়িয়ে কেঁদে ফেলেছিলাম। এতই বড় তোমার ফ্যান ছিলাম আমি। আমি সেদিন বিশ্বাসই করতে পারছিলাম না যে তুমি আমার সামনে দাঁড়িয়ে আছ। এরপর ‘চুড়াকে দিল মেরা’-তে তুমি কোরিওগ্রাফ করলে। আর তা আমার ক্যারিয়ারে মাইলস্টোন সেট করে দিলো। এরপর আরো বহু সিনেমায় তোমার সঙ্গে কাজ করেছি। তুমি আমাকে অনেক কিছু শিখিয়েছ। শিখিয়েছ কীভাবে নাচের সঙ্গে এক্সপ্রেশন দিতে হয়। শিখিয়েছ ভালো পারফরম্যান্সের কিছু খুব সুন্দর কায়দা। যা আমি কোনোদিন ভুলতে পারবো না। তোমার মতো করে কেউ শুটিং করতে পারে না। খুব মিস করব তোমাকে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর