× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৪ আগস্ট ২০২০, মঙ্গলবার

যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সিতে বাংলাদেশি তরুণ খুন

বিশ্বজমিন

বিশেষ সংবাদদাতা, নিউ ইয়র্ক থেকে | ৬ জুলাই ২০২০, সোমবার, ২:৪৩

যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সি স্টেটে এক বাংলাদেশি তরুণ খুন হয়েছেন। গত শনিবার দিবাগত গভীর রাতে স্থানীয় হাডসন নদী থেকে পুলিশ তার মৃতদেহ উদ্ধার করে। উমাইর সালেহ নামের তরুণটির বয়স ২৩ বছর। পরিবারের সাথে সে নিউজার্সির এডিসন শহরের বাসিন্দা ছিল। উল্লেখ্য, নিউ ইয়র্ক ও নিউজার্সি স্টেটের মধ্যবর্তী নদীটির নাম হাডসন। এই নদীর পূর্বপাশে নিউ ইয়র্কের ম্যানহাটন নগরী এবং পশ্চিম তীরে নিউজার্সি স্টেটের জার্সি সিটি।
স্থানীয় কাউন্টি প্রসিকিউটরের অফিস থেকে সাংবাদিকদের জানানো হয়েছে যে, শনিবার সন্ধ্যায় জার্সি সিটির মরিস পার্কের অদূরে হাডসন নদীতে একটি মৃতদেহ ভেসে থাকতে দেখেন এক পথচারি। তিনি ফোন করে বিষয়টি পুলিশকে জানানোর পর বিকাল সাড়ে ৭টার দিকে পুলিশ সেখানে গিয়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে।
সেটি ছিল এক তরুণীর মৃতদেহ, যার বয়স আনুমানিক ২২ বছর। মেয়েটি নিউ ইয়র্কের ম্যানহাটনের বাসিন্দা ছিল।
এর প্রায় ৫ ঘন্টার পর মরিস পার্কের অদূরে হাডসন নদীতে প্রায় কাছাকাছি জায়গায় আরেকটি মৃতদেহ ভাসতে দেখে পথচারিরা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ এসে উদ্ধার করার পর দেখতে পায় যে সেটি এক তরুণের মৃতদেহ। তার পকেটে থাকা পরিচয়পত্র দেখে জানা যায় যে, তার নাম উমাইর সালেহ এবং নিউজার্সির এডিসন শহরে তার বাড়ি। পরে তার পরিবারকে খবর দেয়া হলে তারা এসে মৃতদেহ শনাক্ত করে। তার মাথায় আঘাতের চিহ্ন ছিল।
উমায়ের সালেহ’র মা একজন অভিবাসী বাংলাদেশি এবং তিনি স্কুলে শিক্ষিকতা করেন। তিনি পুলিশকে জানিয়েছেন যে, তাঁর মেধাবী ছেলে নিউজার্সির রাটগার্টস ইউনিভার্সিটি থেকে এ বছরই প্রেসিডেন্ট অ্যাওয়ার্ডসহ গ্রাজুয়েশন করেছে। শনিবার বিকেলে সে হাঁটতে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। এরপর আর ফেরেনি। সালেহ সাঁতার জানতো বলেও জানায় তার মা। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর