× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৫ আগস্ট ২০২০, শনিবার

পুলিশি নির্যাতনে শিক্ষার্থীর কিডনি নষ্ট, বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ হাইকোর্টের

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ৬ জুলাই ২০২০, সোমবার, ৩:৫৮

পুলিশের হাতে নির্মম নির্যাতনের কারণে যশোরের ইমরান হোসেন নামে এক শিক্ষার্থীর দুটি কিডনি নষ্ট হওয়ার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আজ সোমবার বিচারপতি জেবিএম হাসানের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। যুগ্ন জেলা জজ পদমর্যাদার একজন বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তাকে তদন্তের দায়িত্ব দিতে যশোরের জেলা ও দায়রা জজকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। একইসঙ্গে আগামী ৬০ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করতে বলা হয়েছে।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মোহাম্মদ হুমায়ন কবির পল্লব। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সোমেরন্দ্র নাথ বিশ্বাস।

আইনজীবী হুমায়ুন কবির পল্লব বলেন, যশোরে পুলিশ কর্তৃক শিক্ষার্থী ইমরানকে নির্যাতনের ঘটনায় বিচারবিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে যশোরের জেলা ও দায়রা জজকে যুগ্ম জেলা জজ পদমর্যাদার নিচে নয় এমন জুডিশিয়াল অফিসার দিয়ে ওই ঘটনার তদন্ত এবং আগামী ৬০ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে প্রেরণ করতে নির্দেশ দিয়েছেন।


এর আগে গত ১৮ই জুন যশোর জেলার সদর উপজেলার শাহবাজপুর গ্রামের নেছার আলীর ছেলে ইমরান হোসেনকে পুলিশ নির্মম নির্যাতন করে। এতে তার দুটি কিডনি নষ্ট হয়ে যাওয়ার ঘটনায় জনস্বার্থে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার হুমায়ন কবির পল্লব এবং ব্যারিস্টার মোহাম্মদ কাওছার হাইকোর্টে এ রিট দায়ের করেন। রিটে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সচিব, যশোরের পুলিশ সুপার, যশোরের চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশের মহাপরিদর্শক, যশোর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এবং যশোরের সিভিল সার্জনকে বিবাদী করা হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর