× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৭ আগস্ট ২০২০, শুক্রবার

রেকর্ড গড়ে মারা গেলেন তারা

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৮ জুলাই ২০২০, বুধবার, ৮:০৮

রোনি গেলন এবং ডোনি গেলন। নাম ও মানুষ দু’জন হলেও তাদের শরীর মূলত একটা। তারা পেটে জোড়া লাগানো যমজ ভাই। তিন বছর বয়স থেকেই তারা সার্কাসে অভিনয় করে আনন্দ দিয়ে আসছিলেন অন্যদের। এমনি করে গত ৬৮টি  বছর তারা কাটিয়ে দিয়েছেন। এর মাধ্যমে যা উপার্জন করতেন তা দিয়ে ৯ ভাইবোনকে সাহায্য সহযোগিতা করতেন। কিন্তু ৬৮ বছর একসঙ্গে দু’ভাই যুক্ত থেকে অনেক দায়িত্ব পালন শেষে মারা গেছেন ৪ঠা জুলাই। তাদের বাসস্থান যুক্তরাষ্ট্রের ওহাইওর ডেটনে।
তাদেরকে বলা হয়, বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘজীবী জোড়া লাগা যমজ মানুষ। পেট থেকে কোমর পর্যন্ত যুক্ত তারা। দু’জনের ছিল অভিন্ন পরিপাকতন্ত্র, পুরুষাঙ্গ। এর নিয়ন্ত্রণ ছিল ডোনির হাতে। তবে দুই ভাইয়ের ছিল নিজস্ব হৃৎপিণ্ড, পাকস্থলি, একজোড়া হাত এবং শিশুদের মতো পা। নিজেদের মেডিকেলের খরচ এবং ভাইবোনদের সহযোগিতার জন্য তারা সার্কাসে অভিনয় করতেন। এর আগে সবচেয়ে বেশিদিন বেঁচে থাকা যমজ লাগা দু’ভাইয়ের রেকর্ড ছিল থাইল্যান্ডের চ্যাং এবং ইং বাঙ্কারের। তারা জন্মেছিলেন ১৮১১ সালে। ৬২ বছর বয়স পর্যন্ত বেঁচে ছিলেন তারা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর