× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৫ আগস্ট ২০২০, শনিবার

শনাক্ত অবিরাম

এক্সক্লুসিভ

| ৮ জুলাই ২০২০, বুধবার, ৮:২৩

চাঁদপুরে নতুন শনাক্ত ১৯  
চাঁদপুর প্রতিনিধি: চাঁদপুরে আরো ১৯ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত। এর মধ্যে সদরের ১০ জন, মতলব দক্ষিণের ৪ জন, হাইমচরের ৪ জন, মতলব উত্তরের ১ জন রয়েছেন।
এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১২০। এর মধ্যে মৃতের সংখ্যা ৬৫ জন। সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। সূত্র জানায়, গতকাল ৫৫টি রিপোর্ট আসে। এর মধ্যে ১৯টি রিপোর্ট করোনা পজেটিভ। বাকিগুলো নেগেটিভ। চাঁদপুরে জেলায় বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত ১১০১ জনের উপজেলাভিত্তিক পরিসংখ্যান হলো: সদরে ৪৪৩ জন, মতলব দক্ষিণে ১২৯ জন, ফরিদগঞ্জে ১২১ জন, শাহরাস্তিতে ১০৯ জন, হাজীগঞ্জে ১০৫ জন, হাইমচরে ৮৩ জন, মতলব উত্তরে ৭৪ জন ও কচুয়ায় ৫০ জন।
জেলায় মোট ৬৫ জন মৃতের উপজেলাভিত্তিক পরিসংখ্যান হলো: সদরে ১৯ জন, হাজীগঞ্জে ১৬ জন, ফরিদগঞ্জে ৯ জন, মতলব উত্তরে ৮ জন, কচুয়ায় ৫ জন, শাহরাস্তিতে ৪ জন, মতলব দক্ষিণে ৩ জন ও হাইমচরে ১ জন।
 
করোনায় আক্রান্ত যশোর প্রেস ক্লাবের সভাপতি  
স্টাফ রিপোর্টার, যশোর থেকে: প্রেস ক্লাব যশোরের সভাপতি ও দৈনিক যশোরের প্রকাশক সম্পাদক জাহিদ হাসান টুকুন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। উপসর্গ দেখা দেওয়ায় গত রোববার জাহিদ হাসান টুকুন পরীক্ষার জন্য তার শরীরের নমুনা দেন। খুলনা মেডিকেল কলেজ ল্যাবে পরীক্ষা শেষে গত রাতে তার রিপোর্ট পজেটিভ আসে। বিষয়টি স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে তাকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে।
যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন জানান, শারীরিকভাবে সুস্থ আছেন ‘যশোর জেলা করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কমিটি’র এই সদস্য। তিনি নিজেও জাহিদ হাসান টুকুনের সঙ্গে একাধিকবার কথা বলেছেন বলে জানান সিভিল সার্জন।
এদিকে, জাহিদ হাসান টুকুন জানান, তার শারীরিক অবস্থা বেশ ভালো আছে। বেশ কয়েকদিন আগে থেকে তিনি সিনিয়র ডাক্তারদের পরামর্শ অনুযায়ী চলছেন। তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।
জাহিদ হাসান টুকুন যশোর প্রেস ক্লাবের টানা তিনবারের সভাপতি। এর আগে তিনি একই প্রতিষ্ঠানের সম্পাদক ও সহ-সভাপতি হিসেবে বেশ কয়েক টার্মে দায়িত্ব পালন করেন।
এছাড়াও নানা সংগঠন ও সংস্থায় গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন জাহিদ হাসান টুকুন। তিনি রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি যশোরের দীর্ঘদিনের সাধারণ সম্পাদক। রোটারি ক্লাবের শীর্ষ সংগঠক, জেলা জ্বালানি তেল পরিবেশক সমিতি, গ্যাস ব্যবসায়ী সমিতিরও সভাপতি। নন্দন যশোর নামে একটি সাংস্কৃতিক সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, সেভিয়ার নামে একটি এনজিওর নির্বাহী পরিচালক। যশোর চেম্বার অব কমার্সে বেশ কয়েক দফায় সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। যশোর জেলা ট্রাক ব্যবসায়ী সমিতির প্রতিষ্ঠাতাদেরও অন্যতম তিনি।
এর বাইরে সামাজিক নানা কর্মকাণ্ডে যুক্ত জাহিদ হাসান টুকুন করোনা পরিস্থিতিতে ফ্রন্টলাইন ফাইটার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। এই সময়কালে নিরন্ন বহু মানুষ তার কাছ থেকে সহযোগিতা পেয়েছেন। জেলা করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কমিটির সদস্য হিসেবে জেলা পর্যায়ে পলিসি নির্ধারণে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় ছিলেন। বিশেষ করে যশোর বড়বাজারে জনসমাগম নিয়ন্ত্রণে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে কার্যকর ভূমিকা রাখেন তিনি।
সিভিল সার্জন ডা. শাহীন জানান, আপাতত শহরের রেল রোডের বাড়িতে আইসোলেশনে থেকেই চিকিৎসা নেবেন জাহিদ হাসান টুকুন। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা তার চিকিৎসা নিশ্চিত করবেন। শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি না হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হবে না। বাড়ি লকডাউনের বিষয়টি দেখবেন স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা।
জাহিদ হাসান টুকুন জানান, এই মুহূর্তে গলা ব্যথা ছাড়া তার আর কোনো সমস্যা নেই। কুসুমগরম পানি গড়গড় করলে সেটিও নিয়ন্ত্রণে আসছে। ফলে আপাতত বাড়িতে থেকেই ডাক্তারের পরামর্শে চলার কথা ভাবছেন তিনি।
দরকার মনে করলে বাংলাদেশের সর্বাধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার সক্ষমতা রয়েছে সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম অ্যাডভোকেট এএম বদরুল আলার এই সন্তানের। তার ঘনিষ্ঠ যশোরের এক ব্যবসায়ী নেতা সমপ্রতি রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে করোনামুক্ত হয়েছেন। দরকার হলে রাজধানীর ওই হাসপাতালটিতে চিকিৎসা নিতে জাহিদ হাসান টুকুন তার সঙ্গেও যোগাযোগ রাখছেন বলে জানিয়েছেন ওই ব্যবসায়ী নেতা। এদিকে, জাহিদ হাসান টুকুনের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন ক্লাবের সহ-সভাপতি নূর ইসলাম ও আনোয়ারুল কবীর নান্টু, সম্পাদক আহসান কবীরসহ ক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির সব কর্মকর্তা।
প্রেস ক্লাব যশোরের কার্যনির্বাহী কমিটির সর্বশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয় গত ২৯শে জুন। জাহিদ হাসান টুকুনের সভাপতিত্বে ওই সভায় বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত হয়। ক্লাবের সম্পাদক আহসান কবীর জানিয়েছেন, কার্যনির্বাহী কমিটির সভার সিদ্ধান্ত যথাযথভাবে কার্যকর করা হবে। এছাড়া অব্যাহত থাকা করোনা সতর্কতামূলক
 ব্যবস্থা জোরদার করে ক্লাবের াভাবিক কার্যক্রম চালানো হবে।
 
পটুয়াখালীতে ৬ দিনে ১৩৭
পটুয়াখালী প্রতিনিধি: পটুয়াখালীতে করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ সংক্রমণে গত ৬ দিনে (১-৬ই জুলাই) ১৩৭ জন আক্রান্ত ও চারজনের মৃত্যুতে মানুষ আতঙ্কিত। পটুয়াখালী জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, চলতি মাসের ১লা জুলাই থেকে ৬ই জুলাই পর্যন্ত ৩৬৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৩৭ জনের পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে। এ ৬ দিনে মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৫৫ জন।
জেলায় ৭ই এপ্রিল থেকে ৬ই জুলাই পর্যন্ত ৪৭৬৫  জনের নমুনা সংগ্রহ করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। এর মধ্যে পজেটিভ রিপোর্ট আসে ৫২৮ জনের। অর্থাৎ ৫২৮ জন করোনা আক্রান্ত হন এবং ২২ জনের মৃত্যু ঘটে। মোট সুস্থ হয়েছেন ১২৮ জন। আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি হওয়ায় মানুষের মাঝে আতঙ্ক সৃষ্টি হচ্ছে।
পটুয়াখালীতে করোনা চিকিৎসক রয়েছেন ১৬ জন, নার্স রয়েছেন ২৭ জন এবং ৩০ জন অন্যান্য কর্মচারী রয়েছেন বলে সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম জানান।

চৌদ্দগ্রামে শনাক্ত ৯
চৌদ্দগ্রাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি: কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে গত সোমবার নতুন করে ৯ পুরুষ ও নারীর করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে সর্বমোট করোনা শনাক্তর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৬৫ জনে। এরমধ্যে হোম কোয়ারেন্টিনে থেকে সুস্থ হয়েছেন ১৮৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫ জনের। গতকাল দুপুরে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর মো. হাবিবুর রহমান।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, গত ৫ই জুলাই নমুনা সংগ্রহ করা ব্যক্তিদের মধ্যে নতুন করে ৯ জনের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে। নতুন শনাক্ত হওয়া ব্যক্তিরা হলেন; চাঁনপুর কোনাবাড়ির ফাতেমা (৪৫), চাপাচৌ গ্রামের আলী আক্কাস (৩৯), নোয়াপুরের খাদিজা আক্তার (২১), মিয়াবাজার হাইওয়ে পুলিশের তাজুল ইসলাম (২৮), খাটরার সুমি বেগম (৩৩), নুরুন নবী (৩৮), ছাতিয়ানীর সালমা আক্তার (১৫), তালগ্রামের জহিরুল ইসলাম (৪২) ও গুণবতী এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের রেদওয়ান (৩৮)।  
এদিকে দিন দিন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় সর্বত্র আতঙ্ক বিরাজ করছে।

কালীগঞ্জে ৪ পুলিশসহ ৯
কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলায় গতকাল নতুন করে ৪ পুলিশ সদস্যসহ মোট ৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১০৮ জনে। যার মধ্যে মারা গেছে তিনজন ও সুস্থ হয়েছেন ৩৮ জন। বিষয়টি নিশ্চিত করেন কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. সুলতান আহমেদ।
ডা. সুলতান আহমেদ আরো জানান, গতকাল সকালে নতুন করে ২৫টি নমুনার রিপোর্ট এসেছে। যার মধ্যে ৯টি নমুনার রিপোর্ট পজেটিভ বাকি ১৬টি নেগেটিভ। নতুন করে বারবাজার হাইওয়ে পুলিশ স্টেশনের ৪ জন পুলিশ সদস্য, কালীগঞ্জ পৌর এলাকার নিশ্চিন্তপুর, চাপালি, খয়েরতলা, ফয়লা ও দক্ষিণ আড়পাড়া গ্রামের একজন করে মোট ৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের সকলকে বাড়িতে রেখে মোবাইলের মাধ্যমে চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে।
বারবাজার হাইওয়ে পুলিশ স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ মাহফুজার রহমান জানান, গতকাল একজন এএসআই ও তিনজন পুলিশ কনস্টেবলের রিপোর্ট করোনা পজেটিভ এসেছে। তাদের সকলকে পুলিশ স্টেশনে আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।
এছাড়া, ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা. সেলিনা বেগম জানান, গতকাল সকালে কুষ্টিয়া ল্যাব থেকে ৬০টি নমুনার রিপোর্টে নতুন ২৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এরমধ্যে ঝিনাইদহ সদরের ১৩ জন ও কালীগঞ্জের ৯ জন, শৈলকুপার ১ জন ও মহেশপুরের ১ জন রয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩১৯ জন। এরমধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১১৪ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৫ জন।

উল্লাপাড়ায় সাংবাদিকসহ ৪
উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: উল্লাপাড়ায় সিনিয়র সাংবাদিক এ আর জাহাঙ্গীর করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি দৈনিক ইত্তেফাকের উল্লাপাড়া সংবাদদাতা হিসেবে কর্মরত। সপ্তাহ খানেক ধরে তার করোনা উপসর্গ দেখা দেয়। পরে নমুনা পরীক্ষায় গতকাল করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসে। তিনি উল্লাপাড়া পৌরসভার ঝিকিড়া মহল্লায় নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন। উল্লাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডা. মো. আলামিন হোসেন জানান, উল্লাপাড়ায় সাংবাদিক এ আর জাহাঙ্গীরসহ মোট ৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এদের তিন জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মী ওয়ালী উল্লাহ আহমেদ, রমানাথ দাস ও রুহুল আমীন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত উল্লাপাড়ায় মোট ৬০ জনের করোনা শনাক্ত হলো।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর