× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১২ আগস্ট ২০২০, বুধবার

সিলেটে হাসপাতালের অফিস সহকারী জেলে

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ৮ জুলাই ২০২০, বুধবার, ৯:০৫

সিলেটে হত্যাচেষ্টা ও মারধরের মামলায় দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অফিস সহকারী ও শামীমাবাদ এলাকার বাসিন্দা মুসলিম খলিফার ছেলে নূর মোহাম্মদকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পর মঙ্গলবার আদালতে হাজির হয়ে জামিনের জন্য আবেদন করেন নূর মোহাম্মদ। আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। ওই মামলার প্রধান আসামি ছিলেন নূর মোহাম্মদ। অন্য আসামিরা হলেন- সিনিয়র স্টাফ নার্স তাজুল ইসলাম, রেজাউল করিম, স্টাফ নার্স নূরুল ইসলাম ও অফিস সহকারী ওয়াহিদুর রহমানসহ অজ্ঞাত আরো কয়েকজন। এদের মধ্যে  রেজাউল ওসমানী হাসপাতালে এবং বাকি তিনজন ওসমানীর আওতাধীন সদর ও সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালে কর্মরত আছেন। নূর মোহাম্মদ দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। এদের মধ্যে সিনিয়র স্টাফ নার্স তাজুল ইসলাম, রেজাউল করিমকে গত ৫ই মার্চ বৃহস্পতিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে  কোতোয়ালি থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করে।
পরে তাদের আদালতে হাজির করা হলে আদালত এই দুই নার্সকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। স্টাফ নার্স নূরুল ইসলাম ও অফিস সহকারী ওয়াহিদুর রহমানকে আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর