× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৩ আগস্ট ২০২০, বৃহস্পতিবার

সুয়ারেজের রেকর্ড গড়া গোলে কাতালান ডার্বি জিতল বার্সা

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ৯ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৭:৪৫

চলতি মৌসুমের শেষ কাতালান ডার্বিটা এসেছিল অন্যরকম এক আবহ নিয়ে। শিরোপা লড়াইয়ে টিকে থাকতে জিততেই হবে বার্সেলোনার। এস্পানিওলের লড়াইটা ছিল টিকে থাকার। অভিজাত প্রতিবেশীর সঙ্গে অসম লড়াইয়ে পেরে ওঠেনি এস্পানিওল। শেষ পর্যন্ত লড়েও বার্সেলোনার কাছে ১-০ গোলে হেরেছে তারা। নগর প্রতিদ্বন্দ্বীদের বিপক্ষে বার্সেলোনার এটি শততম জয়। এই হারে লা লিগা থেকে অবনমন নিশ্চিত হয়ে গেছে এস্পানিওলের। ১৯৯৩ সালের পর স্পেনের শীর্ষ লীগ থেকে অবনমন ঘটল বার্সেলোনার নগর প্রতিদ্বন্দ্বীদের। আগামী মৌসুমে তাই আর লা লিগা দেখবে না কাতালুনিয়ার বিখ্যাত এই ডার্বি। আর কষ্টার্জিত জয়ে শিরোপা স্বপ্ন টিকে রইল কিকে সেতিয়েনের দলের।
মূল্যবান তিন পয়েন্ট এনে দিয়ে লুইস সুয়ারেজ এখন বার্সেলোনার ইতিহাসে তৃতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা। লাজলো কুবালাকে টপকে বার্সার জার্সিতে এখন ১৯৫ গোল সুয়ারেজের। তার সামনে আছেন সিজার আলভারেজ (২৩২), আর অতিঅবশ্যই লিওনেল মেসি (৬৩০)।

৩৫ ম্যাচে ২৩ জয় ও সাত ড্রয়ে বার্সেলোনার সংগ্রহ ৭৬ পয়েন্ট। এক ম্যাচ কম খেলা রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট ৭৭।

বুধবার রাতে ন্যু ক্যাম্পে প্রথমার্ধে বার্সেলোনার পারফরম্যান্স ছিল হতাশাজনক। একটা শটও লক্ষ্যে ছিল না তাদের। দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া এস্পানিওলের ভাগ্য পাশে না থাকায় গোল পাওয়া হয়নি। একবার বার্সা গোলরক্ষক মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন এবং দ্বিতীয়বার গোলপোস্ট রক্ষা করে বার্সেলোনাকে।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে নেলসন সেমেদোর বদলি হিসেবে মাঠে নামার পাঁচ মিনিটের মাথায় বহিষ্কার হন আনসু ফাতি। প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডার ফার্নান্দো কালেরোকে ফাউল করে শুরুতে হলুদ কার্ড দেখেন বার্সেলোনার এই ফরোয়ার্ড। তবে ভিএআরে দেখে সরাসরি তাকে লাল কার্ড দেখান রেফারি। লা লিগার ইতিহাসে দ্বিতীয় কনিষ্ঠতম ফুটবলার হিসেবে লাল কার্ড দেখার রেকর্ডটাও জুটে গেছে ফাতির সঙ্গে। কিছুক্ষণ পর একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি। এবার ফাউলের শিকার জেরার্ড পিকে। এস্পানিওলের মিডফিল্ডার পল লোসানো শুরুতে হলুদ কার্ড পেয়েছিলেন; তবে ভিএআরের সাহায্যে রেফারি রঙ বদলে লাল কার্ড দেখিয়ে দেন পল লোসানোকে।

৫৬তম মিনিটে কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায় বার্সেলোনা। ডি বক্সের মধ্যে ব্যাকহিলে লিওনেল মেসিকে বল বাড়ান গ্রিজমান। মেসির শট প্রতিহত হয় ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে। ফিরতি বলে সহজেই গোল করেন সুয়ারেজ। আসরে এটি ১৫ তম গোল তার।

এ হারে ১২০ বছরের ইতিহাসে পঞ্চমবারের মতো লা লিগা থেকে অবনমন হলো এস্পানিওলের।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর