× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৫ আগস্ট ২০২০, শনিবার
কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতি

পাপুল কুয়েতের নাগরিক নন

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৯ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৫:০৪

জাতীয় সংসদ সদস্য শহিদ ইসলাম পাপুল কুয়েতের নাগরিক নন। কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার সাফ জানিয়ে দিয়েছে এ কথা। মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, পাপুল কুয়েতের নাগরিকত্ব পেয়েছেন বলে যে খবর ছড়িয়ে পড়েছে তা অসত্য। উল্লেখ্য, মানবপাচার সহ নানা দুর্নীতির অভিযোগে কুয়েতে সম্প্রতি গ্রেপ্তার করা হয়েছে লক্ষ্মীপুর-২ আসনের এমপি শহিদ ইসলাম পাপুলকে। এ নিয়ে কুয়েত ও বাংলাদেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে তোলপাড় চলছে। ঘটনার দিকে দৃষ্টি রেখেছে আন্তর্জাতিক মহলও। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদে বলেছেন, পাপুল কুয়েতের নাগরিকত্ব পেলে তার আসন শূন্য ঘোষণা করা হবে। বুধবার তিনি আরো বলেছেন, পাপুল কুয়েতের নাগরিক কিনা এ বিষয়ে আমরা কুয়েত সরকারের সঙ্গে কথা বলছি।
আমরা এ বিষয়টি দেখছি। যদি তিনি কুয়েতের নাগরিক হন তাহলে তার আসন শূণ্য ঘোষণা করব আমরা। কারণ, আইনকে তার নিজের পথে চলতে দিতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের একদিন পরই বৃহস্পতিবার কুয়েত সরকার সাফ জানিয়ে দিয়েছে, পাপুল কুয়েতের নাগরিক নন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জেনারেল এডমিনিস্ট্রেশন অব রিলেশন্স এন্ড সিকিউরিটি মিডিয়া থেকে বলা হয়েছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপকভাবে প্রচার করা হচ্ছে যে, অভিযুক্ত বাংলাদেশি কুয়েতের নাগরিকত্ব পেয়েছেন। তিনি এলিয়েন্স রেসিডেন্ট ল-এর অধীনে কুয়েতে বসবাসের জন্য এমন প্রচার পাচ্ছে। এতে বলা হয়, (শহিদ ইসলাম পাপুল) কুয়েতে নাগরিকত্ব পেয়েছেন বলে যে খবর ছড়িয়ে পড়েছে তা অসত্য। এক্ষেত্রে সব মিডিয়া ও সামাজিক যোগাযোগ মিডিয়াকে অনুরোধ করা হয়েছে যথাযথ সংবাদ পরিবেশনের। নিশ্চিত করে বলা হয়েছে, নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট যেকোনো অনুসন্ধানের জন্য প্রশাসনের দরজা সব সময় খোলা রয়েছে।
উল্লেখ্য, লক্ষ্মীপুর-২ আসনের এই এমপি মারাফি কুয়েতিয়া গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা। মানবপাচার, অর্থ পাচার ও ঘুষ দেয়ানেয়ার অভিযোগে গত ৬ই জুন কুয়েতের সিআইডি তাকে গ্রেপ্তার করে। কুয়েতের পাবলিক প্রসিকিউশন তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। এ সময় তিনি কুয়েতের কর্মকর্তাদের লাখ লাখ ডলার ঘুষ দেয়ার কথা স্বীকার করেছেন। এর মাধ্যমে তিনি বিদেশী নাগরিকদের কুয়েতে নিয়েছেন। এর বেশির ভাগই বাংলাদেশি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Shafiur Rahman
৯ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৬:৫৬

If you have money then you can do everything in Bangladesh. Our bad luck.

Faridul
৯ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৫:৫৮

বহির্বিশ্বে জাতীয় সংসদের অসম্মানের কারণে সর্ব সম্মতি ক্রমে তাকে জুতা পিটা করা উচিত এবং সংসদ সদস্য পদ বালিত করা দরকার মনে করি/

এস এইচ মল্লিক
৯ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৪:৫৭

কোন অপরাধ দেখা উচিত মানব পাচারকারী না নাগরিকত্ব !!!

অন্যান্য খবর