× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৫ আগস্ট ২০২০, শনিবার

রিয়ালের অমঙ্গলের আশায় সুয়ারেজও

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১০ জুলাই ২০২০, শুক্রবার, ৮:৪৯

কাতালান ডার্বিতে এস্পানিওলের হৃদয় ভাঙলো বার্সেলোনা। সঙ্গে বাঁচিয়ে রাখলো শিরোপার স্বপ্ন। বুধবার রাতে ন্যু ক্যাম্পে লুইস সুয়ারেজের রেকর্ড ছোঁয়া গোলে ১-০ গোলে জয় পায় কোচ কিকে সেতিয়েনের দল। নগর প্রতিদ্বন্দ্বীদের বিপক্ষে বার্সেলোনার এটি শততম জয়। এই হারে লা লিগা থেকে অবনমন নিশ্চিত হয়ে গেছে এস্পানিওলের। ১৯৯৩ সালের পর স্পেনের শীর্ষ লীগ থেকে অবনমন ঘটল বার্সেলোনার নগর প্রতিদ্বন্দ্বীদের। ১২০ বছরের ইতিহাসে পঞ্চমবারের মতো লা লিগা থেকে অবনমন হলো এস্পানিওলের। মূল্যবান তিন পয়েন্ট এনে দিয়ে লুইস সুয়ারেজ এখন বার্সেলোনার ইতিহাসে তৃতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা।
লাজলো কুবালাকে টপকে বার্সার জার্সিতে এখন ১৯৫ গোল সুয়ারেজের। তার সামনে আছেন সিজার আলভারেজ (২৩২), আর লিওনেল মেসি (৬৩০)। ৩৫ ম্যাচে ২৩ জয় ও সাত ড্রয়ে বার্সেলোনার সংগ্রহ ৭৬ পয়েন্ট। এক ম্যাচ কম খেলা রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট ৭৭। চলতি লা লিগার লাগাম রিয়াল মাদ্রিদের হাতে। লীগে বার্সেলোনার বাকি আছে তিন ম্যাচ। ম্যাচগুলো জিতলেই হবে না, মেসিদের তাকিয়ে থাকতে হবে রিয়ালের ফলের দিকে। এর আগে বার্সা কোচ বলেছিলেন, রিয়ালের পয়েন্ট খোয়ানোর আশা তিনি। আর বুধবার সুয়ারেজ বলেন, ‘আমাদেরকে পরের তিনটি ম্যাচ জিততে হবে। মাদ্রিদ কি করবে, সেটা তাদের ব্যাপার। যদি তারা পয়েন্ট হারায়, তাহলে চমৎকার হবে। তারা পয়েন্ট হারালে আমাদের সুযোগটা নিতে হবে।’ কাতালান ডার্বিতে হেরে এস্পানিওলের অবনমনের সঙ্গে আলোচনায় আনসু ফাতির লাল কার্ড। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে নেলসন সেমেদোর বদলি হিসেবে মাঠে নামার পাঁচ মিনিটের মাথায় বহিষ্কৃত হন আনসু ফাতি। প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডার ফার্নান্দো কালেরোকে ফাউল করে শুরুতে হলুদ কার্ড দেখেন বার্সেলোনার এই ফরোয়ার্ড। তবে ভিএআরে দেখে সরাসরি তাকে লাল কার্ড দেখান রেফারি। লা লিগার ইতিহাসে দ্বিতীয় কনিষ্ঠতম ফুটবলার হিসেবে লাল কার্ড দেখলেন ফাতি। কোচ কিকে সেতিয়েন আগলে রাখছেন ১৭ বছর বয়সী শিষ্যকে, ‘মাঠের ওই ঘটনায় ওর খুব খারাপ লাগছিল। সে বল দখলে নিতে গিয়েছিল। আমি ভিডিও দেখেছি। বল দখলে নেয়ার চেষ্টার সময় সে পা পেছনের দিকে বাঁকিয়ে রেখেছিল, যেন ফাউল না হয়।’


কিন্তু সিদ্ধান্ত তো হয়েই গেছে...আমি তার কোনো দোষ দেখছি না।’
ফাতি মাঠ ছাড়ার কিছুক্ষণ পর ফাউলের শিকার হন জেরার্ড পিকে। এস্পানিওলের মিডফিল্ডার পল লোজানো শুরুতে হলুদ কার্ড পেয়েছিলেন; তবে ভিএআরের সাহায্যে রেফারি রঙ বদলে লাল কার্ড দেখিয়ে দেন পল লোসানোকে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর