× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৩ আগস্ট ২০২০, বৃহস্পতিবার

দৌলতপুর সীমান্তে ৫ বাংলাদেশিকে ভারতের জেলে প্রেরণ

বাংলারজমিন

দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি | ১১ জুলাই ২০২০, শনিবার, ৮:৪২

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তের ভারত ভূখণ্ড থেকে মহিষসহ বিএসএফ’র হাতে আটক ৫ বাংলাদেশি রাখালকে ভারতের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। গতকাল সকালে তাদের ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার বহরমপুর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। গত বৃহস্পতিবার ভোররাত সাড়ে ৪টার দিকে ভারতের বাউশমারী সীমান্ত থেকে তাদের আটক করে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ।
স্থানীয় সূত্র জানায়, ৮ জনের একদল বাংলাদেশি রাখাল গত বৃহস্পতিবার ভোররাতে ভারত থেকে মহিষ চোরাপথে বাংলাদেশে পাচার করছিল। এ সময় ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গী থানার ১৪১ বিএসএফ ব্যাটালিয়ন অধীনস্থ বাউশমারী ক্যাম্পের টহলরত বিএসএফ মহিষ পাচারকারীদের ধাওয়া দিয়ে ২টি মহিষসহ বাংলাদেশি ৫ রাখালকে আটক করে। তবে বিএসএফ’র ধাওয়া খেয়ে বাংলাদেশের দৌলতপুর উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের চল্লিশপাড়া সীমান্ত এলাকার সিরাজ, আশিক ও বিপ্লব বাংলাদেশ সীমানায় পালিয়ে আসে। বিএসএফ’র হাতে আটক বাংলাদেশি মহিষ পাচারকারী রাখালদের মধ্যে রয়েছে দৌলতপুর উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের ঠোটারপাড়া গ্রামের নাদের আলীর ছেলে মিঠন আলী (২৫), বগমারী গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে লিটন আলী (৩০) ও আলিম উদ্দিনের ছেলে আলমগীর হোসেন (২৮) এবং চরপাড়া গ্রামের উকিল মণ্ডলের ছেলে বাগু মণ্ডল (৫০) ও জীবন সরকারের ছেলে আনন্দ সরকার (২৫)। বিএসএফ’র হাতে বাংলাদেশি আটকের খবর পেয়ে ৪৭ বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধীনস্থ রামকৃষ্ণপুর বিওপি কমান্ডার বাংলাদেশিদের ফেরত চেয়ে বাউশমারী ক্যাম্পের বিএসএফ’র কাছে পত্র প্রেরণ করলে গতকাল সকাল ১০টায় পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ১৫৭/৫-এস সীমান্ত পিলার সংলগ্ন বাউশমারী-মোহাম্মদপুর সীমান্তের নোম্যান্সল্যান্ডে অনুষ্ঠিত পতাকা বৈঠকে ১৩ সদস্যের বিএসএফ’র পক্ষে নেতৃত্ব দেন ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গী থানার ১৪১ বিএসএফ ব্যাটালিয়ন অধীনস্থ বাউশমারী ক্যাম্পের অধিনায়ক এসি বিমল কুমার।
৮ সদস্যের বিজিবি’র পক্ষে নেতৃত্ব দেন ৪৭ বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধীনস্থ মহিষকুণ্ডি কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার জাহাঙ্গীর আলম। মাত্র ১০ মিনিটের পতাকা বৈঠকে বিএসএফ’র হাতে আটক বাংলাদেশি রাখালদের ভারতের জেলহাজতে প্রেরণের কথা জানানো হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর