× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৪ আগস্ট ২০২০, মঙ্গলবার

ভিএআর নিয়ে বার্সার অভিযোগ কানে তুলছে না রিয়াল

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১২ জুলাই ২০২০, রবিবার, ৮:০৩

ভিডিও এসিস্ট্যান্ট রেফারির (ভিএআর) সিদ্ধান্ত নিয়ে বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না রিয়াল মাদ্রিদের। করোনা পরবর্তী স্প্যানিশ লা লিগা ফেরার পর ভিএআরের সিদ্ধান্তের সবগুলোই রিয়ালের পক্ষে যাওয়ায় দেখা দিয়েছে নানা প্রশ্ন। ভিএআরের সিদ্ধান্ত নিয়ে পক্ষপাতিত্ব হচ্ছে আকারে-ইঙ্গিতে এমন অভিযোগ তুলেন বার্সেলোনা সভাপতি হোসেপ মারিয়া বার্তামেউ ও জেরার্ড পিকে। শুক্রবার রাতে আলাভেসকে ২-০ গোলে হারিয়ে শিরোপার আরও কাছে পৌঁছে গেছে রিয়াল। ম্যাচের দুই অর্ধে করিম বেনজেমা-মার্কো আসেনসিওর গোলের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসে ভিএআরের কাছ থেকে। ম্যাচ শেষে ভিএআর নিয়ে ‘বাইরের’ আলোচনার জবাব দেন রিয়ালের ফরাসি ডিফেন্ডার রাফায়েল ভারান। তিনি বলেন, ‘ভিএআর নিয়ে বাইরের বিতর্ক আমাদের এখানে পৌঁছায় না। কীভাবে লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবো সেটাতেই পুরো মনযোগ দিয়েছি আমরা।
বাকি তিন ম্যাচ জেতাই এখন আমাদের চ্যালেঞ্জ।’
লীগের বাকি আর মাত্র ৩ ম্যাচ। আলাভেসের বিপক্ষে টানা অষ্টম জয়ে আবারও বার্সেলোনার সঙ্গে পয়েন্টের ব্যবধান আবারও ৪-এ নিয়ে গেছে রিয়াল মাদ্রিদ। এ জয়ে ৩৫ ম্যাচে রিয়ালের পয়েন্ট ৮০; দুইয়ে থাকা বার্সেলোনার সংগ্রহ ৭৬ পয়েন্ট। বড় কোনো নাটকীয় কিছু না ঘটলে ২০১৬-১৭ মৌসুমের পর রিয়াল মাদ্রিদ যে লা লিগার শিরোপা জিতছে, সেটা প্রায় নিশ্চিত। বাকি তিন ম্যাচের দুটিতে জিতলেই কোনো হিসাব ছাড়া রেকর্ড ৩৪তম লীগ শিরোপা ঘরে তুলবে ‘লস ব্লাঙ্কোস’ খ্যাত দলটি। পরের দুই ম্যাচে রিয়ালের প্রতিপক্ষ ভিয়ারিয়াল ও গ্রানাডা।
আলাভেসের বিপক্ষে ছিলেন না রিয়াল অধিনায়ক সার্জিও রামোস। শেষ কয়েকটি ম্যাচে তার গোলেই জয় কুড়ায় লস ব্লাঙ্কোসরা। তবে এ দিন রামোসের অভাব বোধ হয়নি। ১১তম মিনিটে রিয়ালের ফারল্যান্ড মেন্ডিকে ডি বক্সের ভেতর ফাউল করে বসেন আলাভেসের ডিফেন্ডার চিমো নাভারো। পরে ভিএআরের সাহায্যে রেফারিও পেনাল্টির বাঁশি বাজান। স্পটকিক থেকে গোল করে রিয়ালকে এগিয়ে নেন করিম বেনজেমা। আসরে বেনজেমার এটি ১৮তম গোল। এই নিয়ে টানা তিন ম্যাচে পেনাল্টি পেল রিয়াল। আগের দুই ম্যাচে রামোসের সফল স্পট কিকে ১-০ ব্যবধানে জিতেছিল তারা। ২০০৫-০৬ মৌসুমের পর এই প্রথম স্পেনের শীর্ষ লীগে টানা তিন ম্যাচে কোনো দল পেনাল্টি পেল। জিনেদিন জিদানের অধীনে ২০৭তম ম্যাচে এসে ৫০০তম গোল পেল রিয়াল মাদ্রিদ। রিয়ালের ইতিহাসে দ্বিতীয় কোচ হিসেবে ৫০০ গোলের নজির গড়লেন জিদান। এর আগে দেখা পেয়েছেন শুধু মিগুয়েল মুনোজ (৬০৫ ম্যাচে ১২২৬ গোল)। রিয়ালকে দু-বার ইউরোপসেরা বানানো মুনোজ ৫০০তম গোলের দেখা পান ১৮৫তম ম্যাচে। মোট ৫১টি প্রতিপক্ষের বিপক্ষে এই পথে স্বাভাবিকভাবেই লা লিগায় সবচেয়ে বেশি গোল (৩৪২) করেছে জিদানের রিয়াল। ৯৩ গোল চ্যাম্পিয়নস লীগে।
৫০তম মিনিটে রিয়ালের ব্যবধান বাড়ানো গোলটাও ভিএআর নিরীক্ষার পর নিশ্চিত করেন রেফারি। রদ্রিগোর নিখুঁত থ্রু পাস ধরে দ্রুত ডিবক্সে ঢুকে করিম বেনজেমা নিজে শট না করে আসেনসিওর দিকে বাড়ান স্কয়ার পাস। গোলের সামনে থাকা অরক্ষিত আসেনসিও সারেন বাকি কাজটা। রেফারি অফসাইডের কারণে গোল বাতিল করেছিলেন। তবে ভিএআর চেকের পর সিদ্ধান্ত যায় রিয়ালের পক্ষেই।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর