× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৪ আগস্ট ২০২০, মঙ্গলবার

ব্যস্ততা বাড়ছে নাট্যাঙ্গনে

বিনোদন

এন আই বুলবুল | ১৪ জুলাই ২০২০, মঙ্গলবার, ৭:২৮

করোনাভাইরাসের কারণে চলতি বছরের ২২শে মার্চ  টিভি নাটকের শুটিং বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল। ৭২ দিন শুটিং বন্ধ থাকার পর ১লা জুন থেকে আবার ছোট পর্দার শুটিং শুরু হয়েছে। কিন্তু এই সময়ে অনেক জনপ্রিয় তারকা শুটিংয়ে অংশগ্রহণ নিরাপদ মনে করেননি। বলা যায়, প্রথম মাস ঢিলেঢালাভাবেই শুটিং হয়। তবে গত কিছুদিনের চিত্র ভিন্ন। ধীরে ধীরে ব্যস্ততা বাড়ছে নাট্যাঙ্গনে। সরব হচ্ছেন শিল্পী, পরিচালক ও কলাকুশলীরা। জনপ্রিয় তারকারা একে একে শুটিংয়েও ফিরছেন।
এরইমধ্যে জনপ্রিয় অভিনেতা অপূর্ব ও  মেহজাবিন একটি নাটকের কাজ করেছেন। এদিকে শুটিংয়ে ফিরেছেন জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ও অভিনেতা তাহসান। এনটিভির একটি ঈদ নাটকের কাজ করেছেন অভিনেত্রী জাকিয়া বারী মমও। একইরকম ভাবে শুটিং করছেন জনপ্রিয় অভিনেতা মোশাররফ করিম, চঞ্চল চৌধুরী, মীর সাব্বির, আনিসুর রহমান মিলন, অভিনেত্রী তারিন জাহান, নাদিয়া আহমেদ, ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর, সাফা কবির, তাসনিয়া ফারিনসহ অনেকে। এ বিষয় নিয়ে অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী বলেন, এভাবে তো আর ঘরে বসে থাকা যাবে না। আমাদের আয়-রুজি নাটকের ওপর। তাই কয়েকটি নাটকে কাজ করবো। এক্ষেত্রে যারা নিরাপত্তা দিতে পারবে তাদের নাটকেই দেখা যাবে। অনেক দিন পর শুটিং শুরু করেছি। ঈদে দর্শকদের কয়েকটি ভালো নাটক উপহার দিতে চাই। সেই লক্ষেই শুটিং চলছে। এদিকে শুটিং প্রসঙ্গে তাহসান বলেন, গেল ঈদে করোনা পরিস্থিতির জন্য নাটকে কাজ করা হয়নি। দর্শক ও কলাকুশলীদের কথা ভেবেই এবার কাজ করছি। তবে খুব বেছে কয়েকটি কাজই করবো।  আমরা শিল্পীরা কাজ করলে নাটক সংশ্লিষ্ট  অন্যদের কাজ করার সুযোগ হবে। বিষয়টি নিয়ে অভিনেত্রী তারিন বলেন, আমরা সত্যি একটা খারাপ সময় পার করছি। কতদিন এই সময়ের মধ্যে থাকবো জানি না। তাই কাজ করা প্রয়োজন মনে করি। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই আমি শুটিং করেছি। কাজ ছাড়া তো এভাবে ঘরবন্দি হয়ে থাকা যায় না। তবে নিজেকে সুরক্ষিত রেখে আমাদের কাজ করতে হবে। ইউনিটের সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। এভাবে সবাই শুটিং করলে আশা করি নাটকপাড়া আবার আগের মতো জমে উঠবে। জনপ্রিয় অভিনেতা মীর সাব্বির বলেন, আমাদের দেশ থেকে খুব সহজে করোনা পরিস্থিতি ভালোর দিকে যাবে মনে হচ্ছে না। আমাদের এই পরিস্থিতির মধ্যেই কাজ করতে হবে। কিন্তু নিজেকে সুরক্ষিত রেখেই শুটিংয়ে অংশ নিতে হবে। ইউনিটের সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। তাহলে আমাদের কাজ করা সম্ভব। তারকাদের মতো নাটকের শুটিং নিয়ে কথা বলেন নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী। তিনি বলেন, আমাদের সতর্ক থেকেই কাজ করতে হবে। কাজের মানুষদের এভাবে ঘরে বসে থাকলে কি আর চলে। আমি এরমধ্যে যে কাজ করেছি সেটিতে সতর্কতার কোনো কমতি ছিল না। আমার ইউনিটের প্রত্যেক সদস্য স্বাস্থ্যবিধি মেনেই কাজ করেছি। গেল ঈদে দর্শক খুব বেশি নতুন নাটক পায়নি। এবার আশা করছি ভালো কিছু হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর