× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার

ঈদকে সামনে রেখে সক্রিয় মলম পার্টি গ্রেপ্তার ৪

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ২১ জুলাই ২০২০, মঙ্গলবার, ৯:০৯

কোরবানির পশুর হাটকে টার্গেট করে রাজধানীতে মলম পার্টির সদস্যরা সক্রিয় হয়েছে। এই পার্টির একটি চক্রকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। তারা হলোÑ মো. মাসুদ, মো. মামুন হোসেন ওরফে সাত্তার, মো. সুমন ওরফে মুসা ও মো. সুমন। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি প্রাইভেটকার, চাপাতি, ছুরি, রশি, গামছা ও নেশাজাতীয় ঘুমের ওষুধ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল ভোরে বাড্ডা এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। সিআইডি বলছে, মলম পার্টির এই চক্রটি পশুর হাট ও গণপরিবহনের যাত্রীদের নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে সর্বস্ব লুট করার পরিকল্পনা করছিল।
গতকাল দুপুরে মালিবাগে সিআইডি সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসপি মোহাম্মদ কামরুজ্জামান বলেন, রাজধানীর কোরবানির পশুর হাটকে টার্গেট করে মলম পার্টির চক্রগুলো সক্রিয় হওয়ার চেষ্টা করছে। এসব চক্র সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালক, যাত্রী ও পথচারীদের টার্গেট করে কৌশলে চোখে বিষাক্ত মলম লাগিয়ে বা ঘুমের ওষুধ খাইয়ে সবকিছু কেড়ে নিয়ে তাদের নির্জন স্থানে ফেলে যায়। এ বিষাক্ত মলমের প্রভাবে অনেক সাধারণ মানুষের চোখ নষ্ট এমনকি মৃত্যু পর্যন্ত হয়।
তারা দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন ধরনের চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে এবং চোখে মলম লাগিয়ে যাত্রীদের সর্বস্ব লুট করে আসছে।
তারা মূলত ৪ থেকে ৫ জন একত্রিত হয়ে একটি প্রাইভেটকার (নম্বর-ঢাকা মেট্রো ১৩-১২৬৮) ব্যবহার করে অটোরিকশার চালক বা যাত্রীদের থামিয়ে বিষাক্ত মলম লাগিয়ে টাকা ছিনিয়ে নিতো। তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে সিআইডির অতিরিক্ত এসপি জীবন কান্তি সরকার, সিনিয়র এএসপি জিসানুল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর