× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার

কুমিল্লায় ১৭ ভরি স্বর্ণসহ ৩ জন গ্রেপ্তার

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, কুমিল্লা থেকে | ৩০ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৮:২৫

কুমিল্লায় একটি জুয়েলারি দোকানে দিনদুপুরে তালা কেটে ৪০ ভরি স্বর্ণ চুরির ঘটনার ক্লু উদঘাটন করেছে পুলিশ। তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তায় ঘটনার সঙ্গে জড়িত ৩ জন আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১৭ ভরি স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়। বুধবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) শাহরিয়ার মোহাম্মদ মিয়াজী। এ সময় ডিআইও-১ মো. মাঈন উদ্দিন খান, জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি আনোয়ারুল আজিমসহ পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, জেলার দেবিদ্বার উপজেলার এগারগ্রাম বাজারের ৩ তলা ভবনের একতা মার্কেটের নিউ হাকিম জুয়েলার্স নামীয় স্বর্ণের দোকানদার মো. এমদাদুল হক গত ২৪শে জুলাই দুপুরে প্রতিদিনের মতো নামাজ ও দুপুরের খাবারের উদ্দেশ্যে দোকানঘরে তালাবদ্ধ করে তার নিজ বাড়িতে যায়। দুপুর আনুমানিক ১২টা ৫০ মিনিট থেকে দুপুর আড়াইটার মধ্যবর্তী সময়ের মধ্যে ওই দোকানের তালা কেটে অজ্ঞাতনামা চোর ৪০ ভরি স্বর্ণ চুরি করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ওই দোকানদার বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা চোরদের বিরুদ্ধে দেবিদ্বার থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তায় নরসিংদী জেলার রায়পুর উপজেলার নীলক্ষা গ্রামের মৃত আবুল হাশেমের ছেলে শামীম হোসেন (২৮) নামে এক আসামিকে কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার চান্দলা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।
পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে সে ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকারসহ আরো ৯ জনের নাম প্রকাশ করে। পরে তার দেয়া তথ্য মতে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ভাগলপুর গ্রামের তালেব হোসেনের ছেলে রোকন (২৭) এবং একই উপজেলার ইউসুফনগর গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের ছেলে হাসান ওরফে শাহীন (৩০) নামে আরো দু’জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১৭ ভরি স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) শাহরিয়ার মোহাম্মদ মিয়াজী জানান, ঘটনার সঙ্গে জড়িত পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত হয়েছে।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর