× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, রবিবার

সোনাইমুড়ীতে সন্ত্রাসী হামলায় ভাঙচুর, লুটপাট, আহত ৩

বাংলারজমিন

সোনাইমুড়ী (নোয়াখালী) প্রতিনিধি | ৪ আগস্ট ২০২০, মঙ্গলবার, ৮:২৭

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সন্ত্রাসী হামলায় ইতালি প্রবাসী কামরুল ইসলামের বসতঘর ভাঙচুর, লুটপাট ও ৩ জনকে আহত করা হয়েছে। গত সোমবার দিবাগত রাত ৭টার দিকে উপজেলার উত্তর কাশিপুর হাশেম মেম্বার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।
স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ৪নং বারগাঁও ইউপির উত্তর কাশিপুর হাশেম মেম্বার বাড়ির আবদুল মান্নানের ছেলে ইতালি প্রবাসী কামরুল ইসলাম ও সহোদর মামুন হোসেনের সঙ্গে একই বাড়ির মৃত আবদুর রশিদের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম, ছিদ্দিক সওদাগর, সাহাব উদ্দিন গংদের সঙ্গে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলায় গত সোমবার সকালে উভয়পক্ষের মধ্যে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে উভয়পক্ষ সোনাইমুড়ী থানায় পরস্পর বিরোধী অভিযোগ দায়ের করেন। বিষয়টি  স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার উভয়পক্ষকে শান্তি-শৃঙ্খলা ভঙ্গ না করে স্থানীয়ভাবে বসে মীমাংসা করে দিবেন বলে, উভয়পক্ষের সম্মতিতে সিদ্ধান্ত হয়। মেম্বার আবদুর রব ঘটনাস্থল থেকে চলে যাওয়ার পর সন্ধ্যা ৭টার দিকে  ছিদ্দিক উল্যা, জাহাঙ্গীর ও সাহাব উদ্দিনের নেতৃত্বে ১০টি মোটর সাইকেল ও একটি মাইক্রো যোগে ৩০-৪০ জন বহিরাগত সন্ত্রাসী অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে প্রবাসী কামরুল ইসলামের বসতঘরে অতর্কিত হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর ও জমি ক্রয়ের জন্য ঘরে রাখা নগদ ৫ লাখ টাকা এবং ৫ ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে যায় বলে ভুক্তভোগী মামুন হোসেন ও সহোদর কামরুল ইসলাম মানবজমিনকে জানান, সন্ত্রাসীদের নিবৃত করতে এগিয়ে এলে তাদের হামলায় আবদুল মন্নান, প্রবাসী কামরুল ইসলাম ও তার বৃদ্ধ মা জাকেরা খাতুন গুরুতর আহত হয়, আহতরা সোনাইমুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য চৌমুহনী লাইফ কেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে স্থানীয় ইউপি সদস্য আবদুর রব মানবজমিনকে জানান, আমি ঘটনাস্থল গিয়ে শান্তিÑশৃৃঙ্খলা রক্ষার্থে উভয়পক্ষের সম্মতিতে সালিশের তারিখ দিয়ে আসার পর  জাহাঙ্গীর গংরা সালিশি সিদ্ধান্ত অমান্য করে বহিরাগত সন্ত্রাসীদের দিয়ে এমন ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটানো ঠিক হয়নি। এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা যায়, এ ঘটনায়  বর্তমানে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর