× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, সোমবার

মার্কিন রাষ্ট্রদূতের গাড়িতে হামলার ২ বছর, এখনো শেষ হয়নি তদন্ত

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ৫ আগস্ট ২০২০, বুধবার, ৯:২৯

ঢাকায় নিযুক্ত সাবেক মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শিয়া স্টিফেনস ব্লুম বার্নিকাটের গাড়িতে হামলার দুই বছর অতিবাহিত হলো। কিন্তু চাঞ্চল্যকর এই মামলার তদন্ত এখনো শেষ হয়নি। মার্কিন রাষ্ট্রদূত বার্নিকাটের গাড়িতে হামলার এই ঘটনায় গ্রেপ্তার হয়নি কেউ। তবে জড়িতদের শনাক্ত করতে তদন্ত অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। যদিও ঘটনার পর হামলায় জড়িত অন্তত সাতজনকে শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছিল। তারপর আর তদন্ত বেশিদূর অগ্রসর হয়নি।

এ বিষয়ে গত বছর যুক্তরাষ্ট্রের তরফে মামলার অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়। বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন যুক্তরাষ্ট্র সফরে গেলে এ বিষয়ে তার কাছে জানতে চাওয়া হয়। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে তৎপর হয়।
পরবর্তীতে ওই বছরের ৩১শে জুলাই পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়ে মামলার অগ্রগতি সম্পর্কে অবগত করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ। উপ-সচিব মল্লিকা খাতুন স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, ঘটনার সঙ্গে জড়িত একজনের তথ্য পাওয়া গেছে। তার নাম বিপ্লব। ঘটনাস্থলে উপস্থিত কাজল, রাসেল, ফিরোজ, আকাশ, রাজু ও সাজুকে শনাক্ত করা হয়েছে। সেইসঙ্গে একটি মোটরসাইকেলও শনাক্ত করা হয়েছে। কিন্তু কাউকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি।

জানা গেছে, এ ঘটনায় জড়িত বিপ্লব ও ঘটনাস্থলে উপস্থিত অন্যদের বিষয়ে তথ্য উদঘাটনের চেষ্টা চলছে। তবে এখন পর্যন্ত বিপ্লবসহ অন্যদের সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য নেই সংশ্লিষ্টদের কাছে। চাঞ্চল্যকর এই মামলার তদন্ত করছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এ বিষয়ে ডিবি’র উপ-কমিশনার গোলাম মোস্তফা রাসেল বলেন, মামলাটির তদন্ত এখনো চলছে। আশা করি শিগগিরই তদন্ত শেষ হবে। তদন্ত সম্পন্ন হলেই এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো সম্ভব হবে বলেন তিনি। তদন্ত নিয়ে মামলার বাদী বদিউল আলম মজুমদার অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তিনি মানবজমিনকে জানান, দুই বছরে গুরুত্বপূর্ণ এই ঘটনার তদন্তে তেমন কোনো অগ্রগতি হয়নি। এই হামলার মূল হোতা ইসতিয়াক মাহমুদকে গ্রেপ্তার করে জিজ্ঞাসাবাদ করলেই হামলাকারীদের সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে।

বদিউল আলম মজুমদার জানান, একই বাড়ির নিচ তলার বাসিন্দা ইসতিয়াক মাহমুদ। তিনি নিজেই হামলার পর গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন সরকারবিরোধী বৈঠক হচ্ছে মনে করে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের বিষয়টি জানান। মূলত ইসতিয়াকই এই হামলার মূল হোতা বলে অভিযোগ করেন বদিউল আলম মজুমদার। তিনি জানান, বাংলাদেশে মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাটের বিদায় উপলক্ষে তার বাসায় সেদিন নৈশভোজের আয়োজন করা হয়েছিল।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ৪ঠা আগস্ট রাতে রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকায় বার্নিকাটের গাড়িতে হামলা হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর