× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার

রিমান্ড শেষে কারাগারে শাহেদ

বাংলারজমিন

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি | ৬ আগস্ট ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৮:৪৭

সাতক্ষীরার দেবহাটা থানায় অস্ত্র আইনে মামলায় বহুল আলোচিত করোনা টেস্ট জালিয়াতি ও প্রতারণা মামলার প্রধান আসামি শাহেদ করিমকে জেলহাজতে প্রেরণ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। গতকাল ১০ দিনের রিমান্ড শেষে দেবহাটা আমলী আদালতে তাকে হাজির করা হলে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাজিব কুমার রায় তাকে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোর্ট ইন্সপেক্টর অমল কুমার রায় বলেন, বহুল আলোচিত করোনা টেস্ট জালিয়াতি ও প্রতারণা মামলার প্রধান আসামি শাহেদ করিমের বিরুদ্ধে দেবহাটা থানায় অস্ত্র আইনে মামলা হয়। ১০ দিনের রিমান্ড শেষে গতকাল দুপুরে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা র‌্যাব-৬ এর এসআই রেজাউল করিম তাকে দেবহাটা আমলী আদালতে হাজির করে। এ সময় আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাজিব কুমার রায় তাকে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। উল্লেখ্য, গত ১৫ই জুলাই বুধবার ভোর ৫টা ১০ মিনিটে করোনা টেস্ট প্রতারণা ও জালিয়াতি মামলার প্রধান আসামি রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান প্রতারক শাহেদ করিমকে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার শাখরা কোমরপুর গ্রামের লাবণ্যবতী নদীর ব্রিজের নিচ থেকে বোরকা পরিহিত অবস্থায় একটি অবৈধ অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরে তার বিরুদ্ধে দেবহাটা থানায় অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়। এ মামলায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গত ২৬শে জুলাই আদালতের কাছে এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা র‌্যাব-৬ এর এসআই রেজাউল করিম ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন জানালে, আদালত তা মঞ্জুর করেন।
পরদিন ২৭শে জুলাই তাকে ঢাকা থেকে খুলনা র‌্যাব-৬ এর কার্যালয়ে আনা হয়। এরপর গত ৩০শে জুলাই শাহেদকে পুনরায় আনা হয় শাখরা কোমরপুর লাবণ্যবতী নদীর ব্রিজের উপর। সেখানে তাকে নিয়ে র‌্যাব সদস্যরা কিছুক্ষণ থাকার পর আবারো তাকে খুলনা র‌্যাব-৬ এর কার্যালয়ে নিয়ে যান।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর