× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, রবিবার

নবীনগরে হামলায় যুবক আহত, হামলাকারীর রহস্যজনক মৃত্যু

বাংলারজমিন

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়ার) প্রতিনিধি | ৫ আগস্ট ২০২০, বুধবার, ১০:৩৬

নবীনগর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের মিরপুর গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জেরে অতর্কিত হামলায় দস্তগীর আলম নামে এক ব্যক্তি গুরুতর আহত অবস্থায় বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে বাসায় ফিরে ওই হামলাকারী কবির হোসেন নিজেই মারা যাওয়ায় স্থানীয়রা মৃত্যুটিকে রহস্যজনক বলে করেছেন। খবর পেয়ে নবীনগর থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা মর্গে প্রেরণ করেছেন।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের মিরপুর দক্ষিণ পাড়ার হারুন মুন্সির ছলে দস্তগীর আলম (৩৮) কে একই এলাকার মৃত মন্তু মিয়ার ছেলে কবির হোসেন (৪০) ও তার দুই ভাগ্নে স্থানীয় হেলাল মিয়ার বাড়ির নিকট একা পেয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। ওই হামলায় দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত অবস্থায় পরিবারের লোকজন দস্তগীর আলমকে নবীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন। তবে হামলাকারী কবির হোসেন ওই ঘটনার পর বাড়ি ফিরে ওইদিন বিকেলে নিজেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। কবির হোসেন এর মৃত্যুতে স্থানীয়দের মনে রহস্যের দানা বাঁধতে
শুরু করছে।

এ ঘটনায় এখনো কোন অভিযোগ পাইনি উল্লেখ করে নবীনগর থানার পুলিশ পরিদর্শক রুহুল আমীন বলেন, কবির হোসেন মাদকাসক্ত ছিলেন। দস্তগীর আলমকে আঘাত করে বাসায় ফিরে সে নিজেই মারা যায়। মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে ময়নাতদন্তের জন্য কবিরের লাশ জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে।।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর