× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, রবিবার

বরগুনায় এএসআইকে চড় মারা সেই ওসি প্রত্যাহার

শেষের পাতা

বরগুনা প্রতিনিধি | ১২ আগস্ট ২০২০, বুধবার, ৯:১৭

বরগুনার বামনা উপজেলা শহরে শত শত মানুষের সামনে এএসআইকে চড় মারার ঘটনায় অভিযুক্ত ওসি মো. ইলিয়াছ আলী তালুকদারকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির সুপারিশে মঙ্গলবার দুপুরে তাকে বামনা থানা থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন বরগুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও এ ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির প্রধান মো. মফিজুল ইসলাম।
তিনি বলেন, এএসআইকে চড় মারার ঘটনার তদন্তে সত্যতা পেয়েছি আমরা। তাই আমরা আমাদের তদন্ত প্রতিবেদনে বামনা থানার ওসি মো. ইলিয়াছ আলী তালুকদারকে প্রত্যাহারসহ বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণেরও সুপারিশ করেছি। এরই প্রেক্ষিতে বামনা থানার ওসি মো. ইলিয়াছ আলী তালুকদারকে বামনা থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে। বরিশালের ডিআইজি অফিসের এক চিঠির মাধ্যমে বামনা থানার ওসিকে প্রত্যাহার করা হয়েছে বলেও জানান তিনি। সোমবার ভুক্তভোগী ওই এএসআইকেও বামনা থানা থেকে প্রত্যাহার করে বরগুনার পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়।
কক্সবাজারে পুলিশের গুলিতে মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদের মৃত্যুর পর গ্রেপ্তার ও কারাবন্দি শাহেদুল ইসলাম সিফাতের মুক্তির দাবিতে গত শনিবার মানববন্ধন পণ্ড করার সময় কর্তব্যরত ওই এএসআইকে চড় মারেন বরগুনার বামনা থানার ওসি মো. ইলিয়াছ আলী তালুকদার। চড় মামার ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম  ফেইসবুকে ছড়িয়ে পড়লে বামনা থানার ওসি মো. ইলিয়াছ আলী তালুকদারের সমালোচনা শুরু হয় সর্বত্র। এতে ভাবমুর্তি নষ্ট হয় পুলিশের।
ওসি ইলিয়াস হোসেন শত শত মানুষের সামনে যে এএসআইকে চড় মারেন তিনিও বামনা থানায় কর্মরত ছিলেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর