× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার

নাটকের গল্পে ভিন্নতার ছোঁয়া

বিনোদন

এন আই বুলবুল | ১৪ আগস্ট ২০২০, শুক্রবার, ৭:৫৮

গেল কয়েক বছর টিভি নাটকের একই রকম গতানুগতিক গল্পে দর্শকরা বেশ বিরক্ত। ঈদ উৎসবেও নাটকের গল্পে দেখা যায়নি তেমন নতুনত্ব। এসব নাটক দেখে সোস্যাল মিডিয়া ও ইউটিউবের কমেন্ট বক্সে দর্শকরা নানা রকম নেতিবাচক মতপ্রকাশ করেন। দেশীয় নাটক থেকে মুখ ফিরিয়ে দর্শকরা নিয়মিত বিদেশি সিরিয়াল দেখছেন বলেও মন্তব্য করেন নাটক সংশ্লিষ্টরাই। তবে এবারের ঈদের নাটকের চিত্রটা ভিন্ন। গেল কয়েক বছরের মধ্যে এবার সবচেয়ে ভালো গল্পের নাটক নির্মাণ হয়েছে, এমনটাই মন্তব্য করছেন সাধারণ দর্শক থেকে শুরু করে নাট্যবোদ্ধারা। ঈদে প্রচারিত এবার বেশকিছু নাটক দর্শকদের মনে দাগ কেটেছে। গতানুগতিক রোমান্টিক কিংবা ভাঁড়ামো সর্বস্ব কমেডি নাটকের পরিবর্তে এসব নাটক ছুঁয়ে গেছে দর্শকদের।
এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য নাটক হলো- আশফাক নিপুণের ‘ইতি-মা’ ও ‘ভিকটিম’, রাফাত মজুমদার রিংকুর ‘বোধ’, ভিকি জাহেদের ‘নির্বাসন’, অনিমেষ আইচের ‘টু-লেট’, মিজানুর রহমান আরিয়ানের ‘স্বার্থপর’, ‘প্রাণপ্রিয় ও ‘শহর ছেড়ে পরাণপুর’, মাহমুদুর রহমান হিমির ‘কেন’ ও ‘ভুল এই শহরের মধ্যবিত্তদেরই ছিল’, সঞ্জয় সমাদ্দারের ‘এই শহরে টাকা ওড়ে’, মাবরুর রশীদ বান্নাহর ‘এ বিটার লাভ স্টোরি’, রুবেল হাসানের ‘বউ’সহ বেশকিছু নাটক। এসব নাটকে অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম, অপি করিম, ঈশিতা, অপূর্ব, আফরান নিশো, তাহসান খান, মেহজাবিন, নুসরাত ইমরোজ তিশা, ভাবনা, রুনা খান, তৌসিফ মাহবুব, সাফা কবির তাসনিয়া ফারিন, ইয়াশসহ অনেকে। ঈদের নাটক নিয়ে জনপ্রিয় অভিনেতা অপূর্ব বলেন, দর্শকরা সব সময় গল্প প্রধান নাটকগুলোকে প্রাধান্য দেয়। এবার ঈদের নাটকগুলো সেটি আবার প্রমাণ করলো। ঈদে এবার গেল কয়েক বছরের মতো গল্পপ্রধান নাটক নির্মাণ হয়নি। দর্শক ও নাটক সংশ্লিষ্ট সকলে এবার ঈদের নাটক নিয়ে সন্তুষ্ট বলা যায়। ঈদে এবার যারা কাজ করেছেন কম-বেশি সকলে গল্পনির্ভর নাটকে অভিনয় করেছেন। আমি চাই গল্পনির্ভর নাটকের দিকে আমাদের নির্মাতারা আরো বেশি মনোযোগী হোক। ঈদের নাটক প্রসঙ্গে অভিনেত্রী রুনা খান বলেন, আমি সবসময় বলি নাটকের গল্পই হলো হিরো। এবার ঈদের অনেক নাটকে সেই গল্পকে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে। এই ধরনের নাটকে কাজ করতেও বেশ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। অভিনেত্রী মেহজাবিন বলেন, গেল রমজান ঈদে পুরো সময় বাসায় ছিলাম। কোনো নাটকে কাজ করা হয়নি। এবার দর্শকদের কথা ভেবে কয়েকটি নাটকে কাজ করেছি। শুরু থেকে পরিকল্পনা ছিল কাজের সংখ্যা যেহেতু কম, তাই ভালো গল্প ও চরিত্রের নাটকগুলোকেই প্রাধান্য দেবো। এবার ঈদে বেশকিছু ভালো নাটক নির্মাণ হয়েছে। দর্শকদের সাড়াও দুর্দান্ত। আমি চাইবো এমন গল্পপ্রধান নাটকই আরো বেশি নির্মাণ হোক।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর