× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, রবিবার

তাড়াশে পরিত্যক্ত বাসা থেকে মরদেহ উদ্ধার

বাংলারজমিন

তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি | ১৪ আগস্ট ২০২০, শুক্রবার, ৬:৫৭

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে মৃত দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে উপজেলার দেশীগ্রাম ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের খিরশীন শ্মশান ঘাটের দক্ষিণ পাশে পরিত্যক্ত এক বাসা থেকে এ  লাশ  উদ্ধার করা হয়। সকালে ওই পরিত্যক্ত বাসার তেুঁতুল গাছের ডাল কাটতে এলে মই দরকার হওয়ায় ঘরের মধ্যে মই আনতে গেলে লাশ দেখতে পায়। তখন সে ডাকাডাকি করে লোকজনকে বলে ঘরের মধ্যে ১টা মানুষ মরে আছে। খবর পেয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুস সরকার সেখানে এসে লাশ চিনতে পারে। পরে তাড়াশ থানায় ফোন দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করেন।
জানা গেছে, মৃত ব্যক্তি হেলাল উদ্দিনের বাড়ি বগুড়া জেলার ধুনটে। ১০ বছর আগে আরংগাইল গ্রামের জসিম উদ্দিনের মেয়ে সামর্থ্য খাতুনকে বিয়ে করে শ্বশুরবাড়িতেই থেকে যায়।
কিছুদিন সংসার করার পরে তাদের ২ জনের মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয়। পরে আবারও একই গ্রামে হাশেমের মেয়ে হামিদা খাতুনের সঙ্গে বিয়ে হয়। তার সঙ্গে কিছুদিন সংসার করলে তাদের দু’জনের মধ্যেও ছাড়াছাড়ি হলে সে ছেড়ে দেয়া বড় বউয়ের সঙ্গে জোর করে কাবিন করে। এ নিয়ে গ্রামে সালিশ হলে সে সামর্থ্য খাতুনকে স্ত্রী হিসেবে নিয়ে সংসার করবে বলে স্বীকার করে। কিন্তু সামর্থ্য খাতুন রাজি না থাকায় সালিশকারকগণ তাকে দেশের বাড়ি পাঠিয়ে দেন। কিছুদিন পার হলে আবারও সে এলাকায় আসে। এভাবে চলতে থাকে তার জীবন।
এ ব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুল আলম বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর