× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার

ধামরাইয়ে স্কুলছাত্রকে হত্যার পানিতে ফেলে দেয়ার অভিযোগ দুই বন্ধু গ্রেপ্তার

বাংলারজমিন

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি | ১৪ আগস্ট ২০২০, শুক্রবার, ৬:৫৭

ঢাকার ধামরাইয়ে লিখন হোসেন (১৫) নামে এক স্কুলছাত্রকে হত্যার পর পানিতে ফেলে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ধামরাইয়ের হাজীপুর নতুন ব্রিজের কাছ থেকে লিখনের লাশ উদ্ধারের পর রাতেই তার দুই বন্ধুকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নিহত লিখন হোসেন ধামরাই পৌরসভার ঘড়িদারপাড়ার আবুল হোসেনের ছেলে। সে ধামরাই রফিক রাজু স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্র ছিল।  গ্রেপ্তারকৃত দুই বন্ধু ধামরাই পৌরসভার পাঠানটোলা মহল্লার আনছার আলীর ছেলে দীপু ও সিদ্দিক দেওয়ানের ছেলে ইমন দেওয়ানকে গতকাল দুপুরে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।
   পুলিশ ও নিহতের স্বজনদের কাছ থেকে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দুপুরে লিখন হোসেনকে তার বন্ধু দীপু ও ইমন দেওয়ান ধামরাইয়ের হাজীপুর নতুন ব্রিজের কাছে বন্যার পানি দেখার কথা বলে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে য়ায়। এরপর দুপুর ২ টায় পরিবারের লোকজন জানতে পারেন লিখন পানিতে ডুবে গেছে। পরে ধামরাই ফায়ার সার্ভিসের কর্মী ও ঢাকার মিরপুর থেকে ডুবুরিদল এসে প্রায় তিন ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে সন্ধ্যায় লিখনের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে ধামরাই থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, নিহত লিখনের গলায়, মুখে ও নাকে আঘাতের চিহ্ন ছিল। তাকে হত্যার পর পানিতে ডুবিয়ে দেয়া হয়েছে।
এ ঘটনায় জড়িত লিখনের দুই বন্ধুকে গ্রেপ্তারের পর গতকাল শুক্রবার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর