× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২১ অক্টোবর ২০২০, বুধবার
কলকাতা কথকতা

কলকাতায় মাকে পুত্রের কাতর চিঠি, ভেনেজুয়েলায় জীবনধারণ অসম্ভব হয়ে যাচ্ছে

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা | ৩১ আগস্ট ২০২০, সোমবার, ১:২৫

লাতিন  আমেরিকার দেশ ভেনেজুয়েলা থেকে কলকাতার  লেক গার্ডেনসে মাকে  কাতর চিঠি লিখেছেন সফটওয়্যার  ইঞ্জিনিয়ার  ছেলে।  ভেনেজুয়েলায় জীবনধারণ অসম্ভব হয়ে যাচ্ছে।  ভাবছি কলকাতায়  ফিরে যাবো।
পঁয়ত্রিশ বছরের অর্জুন কৃষ্ণ  ঘোষের চিঠিটি পড়ে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন পঁয়ষট্টির বিধবা কুন্তলা দেবী।  কারণ  ছেলে লিখেছে,  আমি কিংবা মারিয়া অথবা আমাদের ছেলে জয়দ্রথ দুবেলা দু'মুঠো খেতে পাচ্ছিনা জিনিসপত্রের এত দাম।  মুদ্রাস্ফীতি কুড়ে কুড়ে খাচ্ছে আমাদের।
অর্জুন কৃষ্ণ আজ প্রায় আট বছর আছে ভেনেজুয়েলার রাজধানী কারাকাসে।  বিয়ে করেছে ও দেশের মেয়ে মারিয়াকে। ছেলে জয়দ্রথ এখন পাঁচ। চিঠিতে জানিয়েছে অর্জুন,  ভারতীয় মুদ্রায় এক কেজি আলুর দাম পাঁচশো বাষট্টি টাকা,  এক কেজি চাল সাতশ দু' টাকা।  এক কেজি গাজরের দাম আটশ তেতাল্লিশ টাকা।  এক কেজি পনির দু'হাজার একশো  ন টাকা,  এক কেজি  মাটন দু' হাজার ছশো বারো টাকা।  ভেনেজুয়েলার মুদ্রা হল বলিভার। যদিও ভারতীয় টাকার তুলনায় বলিভার এর দাম অনেক কম,  কিন্তু অনেকদিন পরে সুপারমার্কেট থেকে একটি মুরগি কিনেছে,  দাম পড়েছে দেড় কোটি বলিভার।
করোনার  কারণে এই অবস্থা নয়।  ইন্টারন্যাশনাল মনিটরি ফান্ড এর হিসেব অনুযায়ী ভেনেজুয়েলায় মুদ্রাস্ফীতি বেড়েছে দশ লাখ শতাংশ।  ফলে,  জিনিসপত্রের দাম আকাশছোঁয়া।  সম্প্রতি ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরাই  নতুন নোট  ছেপে সর্বগ্রাসী ইনফ্লেশন রোধের চেষ্টা করেছেন,  কিন্তু তাও ফলপ্রসূ হয়নি।  দেশটির তেলের কূপ পাঁচের দশকে ভেনেজুয়েলাকে বিশ্বের চতুর্থ সেরা সম্পদশালী দেশের তকমা দিয়েছিল।  কিন্তু সাম্রাজ্যবাদী শক্তির বিরুদ্ধে দীর্ঘস্থায়ী লড়াইয়ের পর কমিউনিস্টদের উত্থান,  ধারাবাহিক ক্রাইম ভেনেজুয়েলাকে দুর্বল করেছে।  আজ আর্থিকভাবে একদা সমৃদ্ধ দেশটি কার্যত দেউলিয়া।  অর্জুন কৃষ্ণ চিঠির উপসংহারে লিখেছে,  আমি জানি কলকাতায় সমস্যা আছে। হয়তো যোগ্যতা অনুযায়ী চাকরি পাব না,  কিন্তু দু'বেলা ভাত  আলুসেদ্ধতো  খেতে পাবো।  তাই,  আমি আর মারিয়া ফিরে আসার সিদ্ধান্তই নিচ্ছি।।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Mansoor Ahmed
৩১ আগস্ট ২০২০, সোমবার, ৯:০০

এত বড় তেলসমৃদ্ধ একটি দেশ ! এক সময়ের এত উন্নত একটি দেশ ! রাজনৈতিক অস্থিরতা ও সঠিক দিকনির্দেশনার অভাবে অবস্থা কেমন দুর্বিষহ হতে পারে, তার উৎকৃষ্ট উদাহরণ আজকের এই ভেনেজুয়েলা।

ঝলক চৌধুরী
৩১ আগস্ট ২০২০, সোমবার, ২:০২

বিদেশ যাও! এবার ঠেলা বুঝ! দেশের জন্য কাজ কর, দেশ উন্নত কর তবেই মঙ্গল, তবেই শান্তি!

অন্যান্য খবর