× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, সোমবার

মুসলিমদের কটাক্ষ: টিভি অনুষ্ঠান বন্ধের নির্দেশ ভারতের সুপ্রিম কোর্টের

ভারত

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার, ৯:১৪

ভারতীয় সংবিধানের ফ্রিডম অফ স্পিচের সুযোগ নিয়ে কোনো  সংবাদমাধ্যম এক শ্রেণীর মানুষের আবেগ, অনুভূতি ক্ষুন্ন করতে পারেনা। বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়, ইন্দু মালহোত্রা ও কে এম জোসেফের তিন সদস্যের একটি বেঞ্চ এই রায় দিয়েছেন। ল্যান্ডমার্ক এই রায়ে তারা সুদর্শন টিভিতে প্রচারিত বিন্দাস বোল অনুষ্ঠানটিও বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।

ভারতের সুপ্রিম কোর্ট এই প্রথম একটি টিভি শো বন্ধ রাখার নির্দেশ দিল। জনস্বার্থের এই মামলাটির শুনানি ফের বৃহস্পতিবার হবে।

বিন্দাস বোল অনুষ্ঠানটিতে বলা হয়েছিল, মুসলিমরা ভারতে সিভিল সার্ভিসে অনুপ্রবেশ করছে। জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় বাড়তি সুবিধা পাচ্ছে।

তিন সদস্যের বিচারপতিদের বেঞ্চ বলেছেন, ভারতবর্ষ ধর্মনিরপেক্ষ দেশ।
এদেশের সংস্কৃতি, কৃষ্টি, অনুভূতির সম্পূর্ণ বিপরীত এই সুদর্শন টিভির অনুষ্ঠান। কোনো সম্প্রদায়কে আঘাত করার এবং তাদের আবেগকে আহত করার অধিকার সংবাদমাধ্যমের নেই। তাই তারা দশ এপিসোড-এর বিন্দাস বোল অনুষ্ঠানটি বন্ধ করার নির্দেশ দিচ্ছেন।

উল্লেখ্য, এই অনুষ্ঠানের চারটি পর্ব ইতিমধ্যেই টেলিকাস্ট হয়ে গেছে। বিচারপতিরা মন্তব্য করেন, টিআরপি’র ইঁদুর দৌঁড়ে সামিল হয়ে টিভি চ্যানেলগুলি ভুলে যাচ্ছে যে, তাদেরও সামাজিক দায় রয়েছে। ফ্রিডম অফ স্পিচ-এর দোহাই দিয়ে যেমন ইচ্ছা চলা যায় না।

চ্যানেলের পক্ষে বিশিষ্ট আইনজীবী শ্যাম ধীবন দাবি করেন যে, কোনো সম্প্রদায়কে আঘাত করা নয়, এটি ছিল একটি ইনভেস্টিগেটিং সাংবাদিকতার ফসল। ভারতের সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা বলেন, ফ্রিডম অফ স্পিচ এর সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন ওয়েবপোর্টাল, চ্যানেলে এমন খবর পরিবেশিত হচ্ছে, যা কেবল সামাজিক ক্ষতির কারণ হচ্ছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
samsulislam
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১০:০৭

বাংলাদেশের হিন্দুদের ঘরবাড়ি জ্বালানোর পর কোন বিচারক এমন বলার সাহস পাবেন কি?

Satir Mahdy
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার, ৫:৫৬

Now India is totally in a extreme line about Muslims and their previous role. Such extremism is gaining fuel from every quarters. So, time to time it will be increased. Its only solution is only destroy, the destroy of India. The present ruler is leading India towards that dimension.

Satir Mahdy
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার, ৫:৫৪

Now India is totally in a extreme line about Muslims and their previous role. Such extremism is gaining fuel from every quarters. So, time to time it will be increased. Its only solution is only destroy, the destroy of India. The present ruler is leading India towards that dimensio.

অন্যান্য খবর