× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২১ অক্টোবর ২০২০, বুধবার
হারেৎসের রিপোর্ট

ইসরাইলের সঙ্গে কুয়েতও কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করবে!

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার, ৯:১৩

ইসরাইলের সঙ্গে পরবর্তী কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করবে কুয়েত- এমন আশা করছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। শুক্রবার তিনি হোয়াইট হাউজে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন আশা প্রকাশ করেন। বলেন, আব্রাহাম একর্ডসের অধীনে ইসরাইলের সঙ্গে পরবর্তী আরব দেশ হিসেবে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করতে পারে কুয়েত। তিনি জানান, কুয়েত খুব উচ্ছ্বসিত এ জন্য যে, আমরা দুই দেশকে এরই মধ্যে চুক্তিতে স্বাক্ষর করিয়েছি এবং আশা করছি তারা (কুয়েত) খুব দ্রুততার সঙ্গে এর অবসান ঘটাবে। কুয়েতি আমিরের ছেলে শেখ নাসের সাবাহ আল আহমেদ আল জাবের আল সাবাহ’র সঙ্গে সাক্ষাতের পর ট্রাম্প এ মন্তব্য করেন। সাক্ষাতে সাবাহ তার পিতার পক্ষে একটি পুরস্কার গ্রহণ করেন। বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে উদ্ধৃত করে এ খবর দিয়েছে অনলাইন হারেৎস। এতে বলা হয়, ব্যাপকভাবে ফিলিস্তিনিদের সমর্থন করে কুয়েত।
কিন্তু তারা সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে চুক্তির প্রতি ঝুঁকে পড়েছে। এর ফলে সিনিয়র কর্মকর্তারা বলতে শুরু করেন যে, ইসরাইলের সঙ্গে চুক্তিতে সর্বশেষ যোগ দিতে পারে কুয়েত।
মঙ্গলবার সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও ইসরাইলের মধ্যে সম্পর্ক স্বাভাবিককরণ বিষয়ক চুক্তি হয়। সেখানে ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ইসরাইল ও উপসাগরীয় এই দুই দেশের মধ্যে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। হোয়াইট হাউজে ওই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে নেতানিয়াহু দাবি করেন, এই চুক্তিতে আরো অনেক দেশ যুক্ত হবে। তিনি বলেন, এই শান্তিচুক্তি অন্যান্য আরব দেশের মধ্যে বিস্তৃত হবে। এর ফলে আরব-ইসরাইল সংঘাত এক সময় কেটে যাবে। একেবারে কেটে যাবে।
ওদিকে কুয়েতি আমিরের ছেলে হোয়াইট হাউজ সফরকালে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার পিতাকে এক বেসরকারি অনুষ্ঠানে ইউএস লিজিয়ন অব মেরিট, ডিগ্রি চিফ কমান্ডার পদক উপহার দেন। হোয়াইট হাউজ এক বিবৃতিতে বলেছে, ১৯৯১ সালের পর এই প্রথম এই সম্মাননা দেয়া হলো।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর