× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৩০ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার

কক্সবাজারে জামাতার ছুরিকাঘাতে শ্বশুর খুন

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার থেকে | ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার, ৮:৫২

কক্সবাজার সদরের ভারুয়াখালীতে জামাইর ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন শ্বশুর  নুর কবির (৪৫)। ঘটনায় ছুরিকাহত শাশুড়ি নুর জাহান বেগম (৪০)কে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। সোমবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের মশরফ পাড়ায় ঘটনাটি ঘটে। ঘাতক জামাতা মিজানুর রহমান (২৮) পলাতক রয়েছে। সে একই ইউনিয়নের বানিয়া পাড়ার বাসিন্দা আমির হোসেনের ছেলে। নিহত নুর কবির পেশায় কাঠমিস্ত্রি।

ইউনিয়নের সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান বর্তমান ৯নং ওয়ার্ডের মেম্বার ফজলুল হক স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানায়, জামাইর সঙ্গে বনিবনা সমস্যার কারণে নিজের বাপের বাড়িতে চলে যায় স্ত্রী জেরিন আক্তার। কৌশলে সেখানে গিয়ে শ্বশুরকে খুন করে জামাই মিজানুর রহমান।
স্থানীয় বাসিন্দারা জানায়, নুর কবিরের মেয়ে জেরিন আক্তারের সঙ্গে দেড় বছর আগে মিজানুর রহমানের বিয়ে হয়। বর্তমানে তাদের সংসারে ছয় মাস বয়সী একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। মিজানুর রহমান প্রবাসে ছিল। দেশে ফিরে বউকে দেয়া ৭ ভরি স্বর্ণ বিক্রি করে দেয়। এগুলো শেষ হলে স্ত্রীকে বাপের বাড়ি হতে টাকা এনে দেয়ার জন্য নির্যাতন করতে থাকে। নির্যাতন সইতে না পেরে জেরিন আক্তার তার গরিব কাঠমিস্ত্রি পিতার নিকট থেকে ১ লাখ টাকা এনে দেয়। এরই মধ্যে  মাদক সেবন ও জুয়ার আসরে মেতে ওঠে মিজান। আবারো বাপের বাড়ি থেকে টাকা এনে দিতে চাপ দেয়। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর কথাকাটাকাটি হয়। স্ত্রীকে প্রচুর মারধর করে। নিরুপায় হয়ে বাপের বাড়ি চলে যায় জেরিন। তাতে সে ক্ষিপ্ত হয়ে রাতের আঁধারে শ্বশুরবাড়িতে ঢুকে ছুরিকাঘাত করে। স্থানীয়রা শ্বশুর ও শাশুড়িকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে রাত ৩টার দিকে শ্বশুর নুর কবির মারা যান।
শাশুড়ি নুর জাহান বেগমের সারা শরীরে ছুরিকাঘাত রয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।
লাশের সুরতহাল রিপোর্ট করেছেন কক্সবাজার সদর মডেল থানার পুলিশ উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান।
এ বিষয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসির দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা মাসুম খান জানান, বিরোধের সূত্র ধরে শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে স্ত্রীকে মারধর করে স্বামী মিজানুর রহমান। তাতে বাধা দিতে গেলে শ্বশুর-শাশুড়িকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। হাসপাতালে নিয়ে গেলে মারা যান শ্বশুর। শাশুড়িকে গুরুতর আহত অবস্থায় রেফার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন মাসুম খান।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর