× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৩০ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার

ছাগলনাইয়ায় অপহৃত শিশু সোনাগাজী থেকে উদ্ধার

বাংলারজমিন

ফেনী প্রতিনিধি | ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার, ৯:১১

ফেনীর ছাগলনাইয়া থেকে অপহৃত ৩ মাসের শিশু জুনাইদকে সোনাগাজী থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। অপহরণের ১৮ ঘণ্টা পর শিশু জুনাইদকে সোনাগাজী উপজেলার সদর ইউনিয়নের চরখোয়াজ গ্রামের আব্দুর রব কন্ট্রাক্টর বাড়ির ডা. নুর করিম নামে এক পল্লী চিকিৎসকের বাড়ি থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। অপহৃত শিশু জুনাইদ কুয়েত প্রবাসী নিজাম উদ্দিনের ছেলে।
এ ঘটনায় রোকসানা আক্তার বীথি (২১) নামে এক নারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার বীথি ফেনী সদর উপজেলার লেমুয়া ইউনিয়নের উত্তর চাঁদপুর গ্রামের শাহজাহানের স্ত্রী। সোমবার রাতে ফেনী পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে শিশু উদ্ধার ও অপহরণকারী গ্রেপ্তারের বিষয়টি গণমাধ্যমে অবগত করে ফেনীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মাঈনুল ইসলাম। ফেনীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মাঈনুল ইসলাম জানান, রোববার সকালে শিশু জুনাইদকে ছাগলনাইয়ার পৌর শহরের কলেজ রোড থেকে অপহরণ করা হয়েছে মর্মে থানায় লিখিত অভিযোগ দেয় শিশুর মা জাহেদা আক্তার। পরিবারের অভিযোগের পরপরই স্থানীয় সিসিটিভি ফুটেজ ও তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে অভিযানে নামে ছাগলনাইয়া থানা পুলিশ ও জেলা গোয়েন্দা সংস্থা (ডিবি) সদস্যদের সমন্বয়ে গঠিত দল। দীর্ঘ ১৮ ঘণ্টা অভিযান পরিচালনা করে সোমবার ভোরে সোনাগাজী সদর ইউনিয়নের চরখোয়াজ গ্রামের আব্দুর রব কন্ট্রাক্টর বাড়ির ডা. নুর করিম নামে এক পল্লী চিকিৎসকের বাড়ি থেকে জুনাইদকে উদ্ধার করে পুলিশ।
অপহরণ সম্পর্কে জানতে চাইলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে টাকার লোভে শিশুটিকে বিক্রি করার জন্য অপহরণ করেছে বলে বীথি পুলিশকে জানিয়েছে।
অপহরণে তার এক ছেলে বন্ধুও সহযোগিতা করেছে বলে সে স্বীকার করেছে। আমরা তাকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাচ্ছি।
শিশু  জুনাইদের মা জাহেদা আক্তার বলেন, পারিবারিক সম্পর্কের সূত্র ধরে গত শনিবার রোকসানা আক্তার বীথি আমাদের বাসায় বেড়াতে আসে। রোববার সকালে ছাদে ছবি তোলার কথা বলে আমার বড় সন্তান নুসরাত জাহান (৫) ও ছোট সন্তান জুনাইদ হোসেনকে নিয়ে বাসা থেকে বের হয়। অনেকক্ষণ পর নুসরাত জাহান ফিরে এলেও রোকসানা আক্তার ও জুনাইদ আসেনি। মেয়েকে জিজ্ঞেস করলে মেয়ে বলে রোকসানা শিশু জুনাইদকে নিয়ে সিএনজি অটোরিকশা করে চলে গেছে। অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে ছাগলনাইয়া থানায় অভিযোগ করেছিলাম।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর