× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২১ অক্টোবর ২০২০, বুধবার

জয়তু শেখ হাসিনা দাবায় খেলবেন ১৪ গ্র্যান্ডমাস্টার

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার, ৯:১৭

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মবার্ষিকীতে অনুষ্ঠেয় জয়তু শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক অনলাইন দাবায় অংশ নিচ্ছেন ১৫ দেশের ৭৪ জন দাবাড়ু। যার মধ্যে ১৪ জন গ্র্যান্ডমাস্টারের অংশ নেয়ার সম্ভাবনা আছে। সাউথ এশিয়ান দাবা কাউন্সিলের আয়োজনে, গোল্ডেন স্পোর্টিং ক্লাবের সহযোগিতায় এই টুর্নামেন্টের পৃষ্ঠপোষকতা করছে কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ। আগামীকাল থেকে অনলাইনে শুরু হতে যাওয়া তিন দিনব্যাপী এই প্রতিযোগিতার আকর্ষণ বাড়াতে ভারতের গ্র্যান্ডমাস্টার বিশ্বনাথ আনন্দ এবং রাশিয়ান গ্র্যান্ডমাস্টার গ্যারি কাসপারভের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে। গতকাল হোটেল ওয়েস্টিনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য দেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শাহাবুদ্দিন শামীম। এ সময় পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান চৌধুরী নাফিস শরাফত, গোল্ডেন স্পোর্টিং ক্লাবের সভাপতি আমির আলী রানা এবং ফেডারেশনের দুই যুগ্ম সম্পাদক ড. শোয়েব রিয়াজ আলম (ডিআইজি) ও মাসুদুর রহমান মল্লিক উপস্থিত ছিলেন। সৈয়দ শাহাবুদ্দিন শামীম বলেন, ‘যেহেতু প্রধানমন্ত্রীর ৭৪তম জন্মবার্ষিকী, তাই আমরা ৭৪ জন দাবাড়ুর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে চাই টুর্নামেন্টে। তাছাড়া অনলাইন দাবা বলেই ভার্চ্যুয়ালি হাজির করতে চাই সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন দুই গ্র্যান্ডমাস্টার ভারতের বিশ্বনাথ আনন্দ এবং রাশিয়ার গ্র্যান্ডমাস্টার গ্যারি কাসপারভকে।’ তিনি যোগ করেন, ‘আমাদের ৮টি দেশকে দিয়ে প্রথম খেলার
কথা ছিল।
সাউথ এশিয়ান চেস কাউন্সিলের সভাপতি ও পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. বেনজির আহমেদ এই টুর্নামেন্টে অধিক সংখ্যক জিএমকে খেলার সুযোগ তৈরির কথা বলেছেন। সে লক্ষ্যেই আমরা দক্ষিণ এশিয়ার বাইরের দাবাড়ুদের যুক্ত করছি। রাশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, ও আরো অন্যান্য দেশেও আমন্ত্রণ পাঠিয়েছি। ইতিমধ্যে ৭টি দেশ থেকে জিএমরা দাবাড়ুরা নিবন্ধন করেছেন।’ দেশে বর্তমানে পাঁচজন গ্র্যান্ডমাস্টার রয়েছেন। এই সংখ্যা আরো বাড়ানোর বিষয়ে শামীম বলেন, ‘সপ্তাহখানেক আগে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপিকে আমাদের সভাপতি ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, আমাকে স্পেস দিন আমি আগামী তিন বছরে পাঁচজন গ্র্যান্ডমাস্টার উপহার দেবো দেশকে। তাই আরো গ্র্যান্ডমাস্টার পাওয়ার লোভে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’ আমির আলী রানা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে এই টুর্নামেন্টকে সফল করতে আমরা সব ধরনের কার্যক্রম হাতে নিয়েছি।’ একটি সূত্রে জানা গেছে, ভারতের গ্র্যান্ডমাস্টার বিশ্বনাথ আনন্দকে অনলাইনে হাজির করতে প্রায় ১০ হাজার মার্কিন ডলার গুনতে হবে বাংলাদেশকে। টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের পাঁচ জিএমের মধ্যে আবদুল্লাহ আল রাকিব খেলবেন না। তবে সুস্থ থাকলে খেলবেন নিয়াজ মোর্শেদ। এ ছাড়া এনামুল হোসেন রাজীব, রিফাত বিন সাত্তার ও জিয়ার অংশ নেয়ার কথা রয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর