× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৮ অক্টোবর ২০২০, বুধবার

মুক্তাগাছায় অস্ত্রের মুখে ডাকাতরা নিয়ে গেলো ১৬টি ষাঁড়

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ থেকে | ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, সোমবার, ৮:২০

মুক্তাগাছায় রাতের আঁধারে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতরা অস্ত্রের মুখে নিয়ে গেছে ২০ লক্ষাধিক টাকা মূল্যের ১৬টি ষাঁড়। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার দিবাগত রাত্রি ২টা থেকে ৩টার মধ্যে। উপজেলার ডৌওয়াখোলা এলাকার আরব এগ্রো ফার্ম থেকে ১৫/২০ জনের সঙ্ঘবদ্ধ ডাকাত দল অস্ত্রের মুখে দেশী-বিদেশী ১৬ টি ষাঁড় গরু দুটি ট্রাক ভর্তি করে নিয়ে গেছে। ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ফার্মের প্রধান গেটের পাহারাদার আঃ রশিদকে আটক করে। পরে ব্যপক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে ছেড়ে দেয়। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) শাহজাহান কবির, মুক্তাগাছা থানার ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস ও ডিবির ওসি শাহ কামাল আকন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
পুলিশ ও ফার্মের কর্মচারীরা জানায়, শনিবার দিবাগত রাত্রি আনুমানিক ২টার দিকে কুমারগাতা ইউনিয়নের ডৌওয়া খোলাস্থ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আরব আলীর মালিকানাধীন আরব এগ্রো ফার্মের কাটা তারের বেড়া কেটে ডাকাতদল ভিতরে প্রবেশ করে। পরবর্তীতে ডাকাতরা ফার্মের প্রধান গেইটের ঐ রাতের দায়িত্ব পালনরত পাহারাদার আঃ রশিদকে ৩ ডাকাত দেশীয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে প্রধান গেইটের চাবি নিয়ে নেয়।
পরবর্তীতে গেইট খুলে অন্যান্য ডাকাতরা ভিতরে প্রবেশ করে। পাশের ঘরে এগ্রো ফার্মের নিয়মিত কর্মচারী শরীফুল কিছু বুঝে উঠার আগেই ৩ ডাকাত তার গলায় ছুরি ধরে জিম্মি করে অন্যন্য ডাকাতরা গোয়াল ঘরে প্রবেশ করে দড়ি কেটে দেশী-বিদেশী ১৬ টি ষাঁড় গরু ২টি ট্রাকে তুলে নিয়ে যায়। যার আনুমানিক মূল্য ২০ লক্ষাধিক টাকা। প্রায় ঘন্টা ব্যাপি ডাকাতির পর তারা নির্বিঘ্নে চলে যায়। ডাকাতরা চলে যাওয়ার পর ফার্মের ম্যানেজার হুমায়ুন কবির রাত সোয়া ৩ টার দিকে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আরব আলীকে বিষয়টি মোবাইলে জানান। আরব আলী বলেন, ঘটনাটি জেনে তিনি তাৎক্ষণিক মুক্তাগাছা থানার ওসির মোবাইলে যোগাযোগ করে তাকে না পেয়ে ওসি তদন্তকে বিষয়টি জানায়। ঘন্টাখানেক পর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর