× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২০ অক্টোবর ২০২০, মঙ্গলবার

ঘাটাইলে সোলাইমানের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ কর্তনের অভিযোগ

বাংলারজমিন

ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি | ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, সোমবার, ৮:৪৬

ঘাটাইলের ৪নং লোকেরপাড়া ইউনিয়নের চর বকশিয়া গ্রামের মো. সোলাইমানের বিরুদ্ধে সরকারি রাস্তার গাছ কর্তনের অভিযোগ উঠেছে। একইসঙ্গে উঁচু জমি নিচু দেখিয়ে রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে রেজিস্ট্রি করার অভিযোগও রয়েছে। এ নিয়ে গত ২৩শে সেপ্টেম্বর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে অভিযোগ করা হয়েছে।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ১৪ই সেপ্টেম্বর ঘাটাইল উপজেলার পাঁচ টিকড়ী মৌজার দক্ষিণপাড়া হাবুর বাড়ি থেকে মজরের বাড়ি পর্যন্ত সরকারি রাস্তার উভয় পার্শ্বের চারলাখ টাকা মূল্যের গাছ ভাড়াটে লোক দিয়ে কেটে নেন পুলিশের এসআই মো. সোলাইমান। এছাড়াও পাঁচটিকড়ী মৌজার সন্তোষ বসুর পাঁচ বিঘা জমি জোরপূর্বক দলিল করে নেন তিনি। এরপর ু ওই পাঁচ বিঘা উঁচ জমি নিচু দেখিয়ে সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে রেজিস্ট্রি করেন। পাঁচ টিকড়ী গ্রামের নব্বই বছরের বৃদ্ধ পরিমল চন্দ্র বসু জানান, আমার ছোট ভাইকে বাড়ি থেকে উঠিয়ে নিয়ে তার কাছ থেকে জোর করে পাঁচ বিঘা জমি দলিল করে নিয়ে তাকে আর বাড়ি ফিরে আসতে দেয়নি। তাকে জোরপূর্বক দেশ ত্যাগে বাধ্য করেছে। এ ব্যাপারে এসআই মো. সোলাইমান বলে, আমার জমি আমার গাছ আমি কেটেছি তাতে তাদের তো কোন সমস্যা হওয়ার কথা নয়।
সরকারকে রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে নিজ নামে যে পাঁচ বিঘা জমি রেজিস্ট্রি করেছেন এ ব্যাপারে তিনি বলেন, বিষয়টি সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের বিষয়। আমি টাকা দিয়েছি বিনিময়ে জমি কিনেছি। এ ব্যাপারে ঘাটাইল উপজেলা নির্বাহী অফিসার অঞ্জন কুমার সরকার বলেন, বিষয়টি নিয়ে যেহেতু সরকারের উচ্চ পর্যায়ের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দেয়া হয়েছে সেহেতু এটা তদন্ত করে দেখতে হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর