× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৮ অক্টোবর ২০২০, বুধবার

‘সব সেক্টরেই অনিয়ম নিয়ম হয়ে গেছে’

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ থেকে | ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, সোমবার, ৮:৪৮

 শামীম ওসমান বলেছেন, আমাদের যে কোনো ক্ষমতা নাই তা কিন্তু করোনাভাইরাস এই আট মাসে বুঝিয়ে দিয়েছে। তারপরও আমার মনে হয় আমরা এখনো অনেক মানুষ অবুঝ আছি। এখনো যুদ্ধ যুদ্ধ খেলা হয় সারা পৃথিবীতে। আমরা এখনো কেন জানি বুঝতে পারছি না যে, আল্লাহ আমাদের পরীক্ষা নিচ্ছেন। আর যতক্ষণ পর্যন্ত বুঝতে না পারবো ততক্ষণ আমরা মনে হয় এগুলো করতেই থাকবো। করোনার এই মহামারিতে মানুষ ধান্ধা করছে। ব্যবসা করা এক জিনিস আর ধান্ধা করা আরেক জিনিস। এই সময়েও মানুষ স্বাস্থ্যখাত নিয়ে দুর্নীতি করে কেন? এরা যা করে এরা কি মানুষ? আমার নিজের কাছে মাঝে মাঝে মনে হয় জানি না আল্লাহ আমাদের মাফ করবেন কিনা?
রোববার বিকালে ফতুল্লার পশ্চিম তল্লার বায়তুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণে নিহত ও আহত ৩৫ পরিবারের হাতে পরিবারপ্রতি প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ৫ লাখ টাকার চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।
শামীম ওসমান বলেন, যেকোনো সেক্টরেই এখন অনিয়মটাই নিয়ম। এই অনিয়মকে নিয়মে পরিণত করা একা রাষ্ট্রের পক্ষে সম্ভব না। এটা সবাই মিলে করতে হবে। তিনি বলেন, যারা সিস্টেমের ভেতরে আছে তারাই তো সিস্টেম ভাঙে। নারায়ণগঞ্জে বাড়ি, ঘরের পারমিশন কে দিয়েছে? দেয়ার তো কথা রাজউকের। রহমতুল্লা ইনস্টিটিউট ভাঙে কে? ওটার সভাপতি তো জেলা প্রশাসক। হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা আছে। তিনি বলেন, সবাইকে আইনের আওতায় থাকতে হবে। কিন্তু রক্ষকরাই যদি ভক্ষক হয়ে যায়, তাহলে আগামী প্রজন্ম তো আইন মানবে না।
জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আর্থিক সাহায্যের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার প্রশাসন মোস্তাফিজুর রহমান, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক শাকিল আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শামীম বেপারি, সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা বারিক, জেলা আদালতের পিপি ওয়াজেদ আলী খোকন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ফারুক, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হক নিপু প্রমুখ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর