× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৬ অক্টোবর ২০২০, সোমবার

ধামরাইয়ে এস আই’র বিরুদ্ধে হামলা-ভাঙচুরের অভিযোগ

অনলাইন

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি | ১৭ অক্টোবর ২০২০, শনিবার, ১১:৫২

ঢাকার ধামরাইয়ে এক এস আই’র বিরুদ্ধে  চা দোকান-বসতবাড়িতে  হামলা ভাঙচুর ও নারীদেরকে মারধরের  অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। শনিবার সকালে চৌহাট ইউনিয়নের মুন্সীচর গ্রামের চা দোকানদার মোকাদ্দেস আলী এ অভিযোগ দায়ের করেন। তবে অভিযুক্ত এস আই জানিয়েছেন হামলা ভাঙচুরের সময় তিনি ঘটনাস্থলেই ছিলেন না।
জানা গেছে, ঢাকার রমনা থানায় কর্মরত এস আই আনিসুর রহমান তিন দিন আগে ছুটিতে ধামরাইয়ের চৌহাট ইউনিয়নের মুন্সিরচর গ্রামের বাড়িতে আসেন। মুন্সিরচর বাজারে  মোকাদ্দেস আলীর  চায়ের দোকান ও বসত বাড়ি নিজেদের জমি দাবি করে  তা দখল  নিতে তিনি ও তার ভাই আতুল্লাচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শহিদুর রহমানের নেতৃত্বে কয়েকজনের একটি দল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে হামলা ও ভাঙচুর চালায়। এসময় দোকানে থাকা মোকাদ্দেসের স্ত্রী সামেলা বেগম ও তার মেয়ে রেহেনা আক্তার পলি বাধা দিলে তাদের টেনে হেচড়ে দোকান থেকে বের করে রাস্তায় নিয়ে বেদম মারপিট করে এবং দোকানের মালামাল ও চেয়ার টবিল তছনছ করে ঘরে তালা লাগিয়ে দেয় তারা। সামেলা ও পলির চিৎকারে গ্রামবাসী ও আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে পালিয়ে যায় তারা। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় সামেলা বেগমকে সাটুরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে স্থানীয়রা।
এ ঘটনায় শনিবার সকালে এস আই আনিসুর রহমান ও তার ভাই শিক্ষক শহিদুর রহমানসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
এস আই আনিসের নির্যাতনের শিকার সামেলা ও তার পরিবার জানান, দারোগা বলে এলাকায় প্রভাব খাটিয়ে আমাদের গরীবের উপর জুলুম করেছেন। তিনি এর বিচার চান। তবে অভিযুক্ত তবে এস আই আনিসুর রহমান মারপিট ও ভাঙচুরের কথা অস্বীকার করেছেন।
এবিষয়ে ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, পুলিশ বলে সে আইনের উর্দ্ধে নয়।  অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর