× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৬ নভেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার
রয়টার্সের প্রতিবেদন

হার্ট ও ফুসফুসের চিকিৎসায় ২ ওষুধের অনুমোদন সুপারিশ ইইউ এজেন্সির

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৯ অক্টোবর ২০২০, সোমবার, ৪:২৭

হার্টফেইল এবং ফুসফুসের সমস্যার চিকিৎসায় এস্ট্রাজেনেকার দুটি ওষুধ চিকিৎসায় ব্যবহারের অনুমোদন দেয়ার সুপারিশ করেছে ইউরোপের ওষুধ বিষয়ক পর্যবেক্ষক সংস্থা ইউরোপিয়ান মেডিসিন্স এজেন্সির (ইএমএ) কমিটি ফর মেডিসিনাল প্রডাক্টস ফর হিউম্যান ইউজ (সিএইচএমপি)। এ দুটি ওষুধ হলো ফরক্সিগা (Forxiga) এবং ট্রিস্কেও এরোস্পেয়ার (Trixeo Aerosphere)। এতে বলা হয়েছে, হার্টফেইল করলে সেক্ষেত্রে চিকিৎসনায় ব্যবহার করা যেতে পারে ফরক্সিগা। অন্যদিকে ধুমপানের ফলে ফুসফুসের যে সমস্যা দেখা দেয় তার চিকিৎসায় ব্যহার করা যেতে পারে ট্রিস্কেও এরোস্পেয়ার। এস্ট্রাজেনেকার ফরক্সিগা ওষুধটি সাধারণত ডায়াবেটিসের চিকিৎসায় ব্যবহার করা হয়। এ ওষুধটি উত্তর আমেরিকার বাইরে ফরক্সিগা নামে পরিচিত। একে প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের ডায়াবেটিস টাইপ-২ থাকুক বা না থাকুক, তাদের হার্টফেইলের চিকিৎসায় ব্যবহারের সুপারিশ করেছে সিএইচএমপি। অন্যদিকে  ট্রিস্কেও এরোস্পেয়ার হলো তিনটি থেরাপির সমন্বয়ে তৈরি ওষুধ।
এরই মধ্যে এটি অনুমোদন পেয়েছে জাপান, চীন এবং যুক্তরাষ্ট্রে। ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি রোগে এরই মধ্যে এই ওষুধটি ব্যবহার করা হচ্ছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর