× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৪ নভেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার

নেত্রকোনায় চাকরি দেয়ার কথা বলে টাকা নেয়ার অভিযোগ

বাংলারজমিন

নেত্রকোনা প্রতিনিধি | ২১ অক্টোবর ২০২০, বুধবার, ৮:৪৫

নেত্রকোনার দুর্গাপুরের বাকলজোড়া ইউপি সদস্য সবুজ মিয়ার মেয়ে আঁখি আক্তারকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চাকরি পাইয়ে দেয়ার কথা বলে তিন লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে কলমাকান্দার খলা গ্রামের মৃত ইমাম হোসেনের ছেলে মো. হাসিম মিয়া ও আনোয়ার হোসেন জনির বিরুদ্ধে। এ ব্যাপারে সবুজ মিয়া গতকাল মঙ্গলবার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিপিআই নেত্রকোনা বরাবরে এবং সোমবার নেত্রকোনা পুলিশ সুপার বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেছেন।
অভিযোগে জানা গেছে, জেলার দুর্গাপুর উপজেলার বাকলজোড়া ইউনিয়নের ছোট কাঠুরী গ্রামের ইউপি সদস্য সবুজ মিয়ার মেয়ে আঁখি আক্তারকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চাকরি পাইয়ে দেয়ার কথা বলে কলমাকান্দার খলা গ্রামের মো. হাসিম মিয়া ও ভাই আনোয়ার হোসেন জনি ৭ লাখ টাকা দাবি করেন। সেই অনুযায়ী তাদের সঙ্গে সবুজ মিয়া কয়েক কিস্তিতে টাকা দেয়ার বিষয়টি সাব্যস্তও করেন। পরে গত বছরের ১০ই জুলাই ২ লাখ আট হাজার ও পরে আরও এক কিস্তিতে ৯২ হাজার টাকা দেন। বাকি টাকা চাকরি হলে পরে দেয়ার কথা বলেন। কিন্তু দীর্ঘদিন চলে গেলেও চাকরি না হওয়ায় বিষয়টি জানাতে চাইলে তারা নানা টালবাহানা শুরু করেন। পরে এ ব্যাপারে গত ৫ই জুলাই গ্রাম্য সালিশ বসে।
সালিশে টাকা ফেরত দেয়ার কথা স্বীকার করেন দুই ভাই। কিন্তু কথামতো টাকা না দিয়ে ফের নানা টালবাহানা শুরু করেন। এ ব্যাপারে সবুজ মিয়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পিবিআই নেত্রকোনা ও পুলিশ সুপার বরাবরে বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেছেন।
মো. হাসিম মিয়া ও আনোয়ার হোসেন জনির সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি। তাদের মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।
নেত্রকোনার পুলিশ সুপার মো. আকবর আলী মুন্সী অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।   

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর